গ্রাম আদালতের মাধ্যমে মানুষ অতি সহজেই সুবিচার পাচ্ছে: শাহিদুল ইসলাম

চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শাহিদুল ইসলাম বলেছেন, ‘গ্রাম আদালতের মাধ্যমে হতদরিদ্র মানুষ অতি সহজেই সুবিচার পাচ্ছে। গ্রাম আদালতের কোন বিকল্প নেই। উপজেলা পর্যায়ে সরকারি ও বেসরকারি সংস্থা সমূহের প্রতিনিধিরা কাজের পাশাপাশি গ্রাম আদালত সম্পর্কে সাধারণ মানুষদেরকে অবহিত করতে হবে। বিশেষ করে প্রচার-প্রচারণার মাধ্যমেই জনগণকে সম্পৃক্ত করতে হবে।’

মঙ্গলবার চাঁদপুর মতলব দক্ষিণ উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে উপজেলা পর্যায়ে সরকারি ও বেসরকারি সংস্থা সমূহের প্রতিনিধিদের জন্য গ্রাম আদালত শীর্ষক অবহিতকরণ কর্মশালায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথাগুলো বলেন।

তিনি আরো বলেন, ‘গ্রাম আদালতের ৫ জনের একটি প্যানেল থাকে। এই প্যানেল বিচারকার্জ সম্পন্ন করে। এই আদালতের উদ্দেশ্য হচ্ছে গ্রামীণ জনপদে সাধারণ মানুষের জন্য বিচারপ্রাপ্তির সুযোগ সৃষ্টি করা বর্তমান সরকারের অন্যতম অঙ্গীকার। এ ক্ষেত্রে গ্রাম আদালত ব্যাপক ভূমিকা রাখছে।’

গ্রাম আদালত, স্থানীয় সরকার চাঁদপুর ডিস্ট্রিক ফ্যাসিলিটেটর (ডিএফ) নিকোলাস বিশ্বাস-এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. নজরুল ইসলাম, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দিলরুবা খানম, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুর রহিম খান, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মোঃ রুহুল আমিন, মতলব প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা এনজিও কো-অর্ডিনেটর রোটা. শ্যামল চন্দ্র দাস।

বাংলাদেশে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ ২য় পর্যায় প্রকল্পের অনুষ্ঠানটির সার্বিক সহযোগিতা করেন, জেলা সমন্বয়কারী মোঃ আমিনুর রহমান ও উপজেলা সমন্বয়কারী মোঃ এনামুল হক। সভায় উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের প্রতিনিধিবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

গ্রাম আদালত আইন ও বিধিমালা বিষয়ে সংক্ষিপ্ত ধারনা প্রদান, প্রশ্নোত্তর পর্ব ও সমাপণী পর্বে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়।(বিজ্ঞপ্তি)