গোবিন্দগঞ্জে পৃর্থক ভাবে অজ্ঞাত নারীসহ যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

গাইবান্ধা থেকে, আঃ খালেক মন্ডল : গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কামদিয়া ইউনিয়নের নামাপাড়া গ্রাম থেকে শিপন হোসেন (১৮)নামে এক যুবকের গলাকাটা লাশ রোববার সন্ধ্যার দিকে উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। নিহত যুবক শিপন মিয়া ওই গ্রামের মৃত ইব্রাহিম আলীর পুত্র।নিহতের মা শিউলি বেগম জানান, ছেলে শিপন হোসেনকে বাড়ীতে রেখে তিনি দুপুরের দিকে বোনের বাড়ীতে বিয়ের দাওয়াতের অনুষ্ঠানে যান। বাড়ীতে না থাকার সুযোগে দুর্বৃত্তরা শিপনকে গলাকেটে হত্যা করে পালিয়ে যায়। গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান জানান, নিজ বাড়ীর পূর্বদুয়ারী একটি টিনসেড ঘরে স্থানীয়রা শিপনের গলাকাটা লাশ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেয়। এরই প্রেক্ষিতে পুলিশ ওই স্থান থেকে তার লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। সোমবার সকালের দিকে ময়না তদন্তের জন্য লাশটি গাইবান্ধা জেলা মর্গে পাঠানো হয়।তিনি আরো জানান, এ হত্যার রহস্যের তথ্য উদঘাটনসহ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।অপর দিকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ঢাকা রংপুর মহাসড়কের কাটাখালী ব্রীজ সংলগ্ন হাওয়াখানা নামক স্থান থেকে রোববার রাত সাড়ে দশটার দিকে অজ্ঞাত এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান জানান, মহাসড়কের কাটাখালী ব্রীজ সংলগ্ন হাওয়াখানা নামক স্থানে স্থানীয়রা ওই অজ্ঞাত নারীর লাশ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে যেয়ে লাশটি উদ্ধার করে। তার গলায় কালো দাগ রয়েছে। ধারনা করা হচ্ছো তাকে গলায় ফাঁশ দিয়ে হত্যার পর লাশ ফেলে রেখে গেছে দুর্বৃত্তরা।

Inline
Inline