গোপালগঞ্জে যাত্রীবাহী বাসের চাপায় নিহত ২, আহত ৭

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জ-কোটালীপাড়া সড়কের কাঠি বাজার এলাকায় যাত্রীবাহী বাসের চাপায় ২ জন নিহত এবং ৭ আহত হয়েছে। এ ঘটনায় বিক্ষুদ্ধ জনতা ঘাতক বাসটিতে আগুন ধরিয়ে পুড়িয়ে দেয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থালে গিয়ে আগুন নেভায়। এ সময় ফায়ার সার্ভিসের দলটি আগুন নিভাতে গিয়ে জনরোষের শিকার হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, কাঠি গ্রামের মৃত মাজেদ মোল্লার ছেলে আবুল কালাম মোল্লা (৪৫) ও হাসান শেখের ছেলে হামিম শেখ (৩৫)। এদের বাড়ি সদর উপজেলার কাঠি ও বলাকড়ই গ্রামে। নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। আহতদের মধ্যে দুইজনকে খুলনা ও একজনকে ঢাকা পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মায়ের দোয়া নামে একটি যাত্রীবাহী লোকাল বাস কোটালীপাড়া থেকে গোপালগঞ্জ আসার পথে দত্তডাঙ্গা নামক স্থানে দুই পথচারীকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যাবার সময় কাঠি এলাকায় এসে আরো ৭ যাত্রী বহনকারী ভ্যান গাড়িকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুইজন নিহত ও অপর ৫ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে গোপালগঞ্জে ৫ জন এবং বাকি ২জনকে কোটালীপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে, রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে এলাকার ক্ষুব্ধ জনগন সড়কে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়। প্রায় দুই ঘন্টা ওই সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকার পর পুলিশের আশ্বাসের ভিত্তিতে আবারো যান চলাচল শুরু হয়।

Inline
Inline