গোপালগঞ্জে অর্থাভাবে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর প্রহর গুনছেন মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে অর্থাভাবে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম শেখ (৬৫)। দীর্ঘ দিন যাবত ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাহীন ভাবে মৃত্যুর প্রহর গুনছেন তিনি। শহিদুল ইসলাম গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার রামদিয়া গ্রামের মৃত আবদুল বারেক শেখের ছেলে। তাঁর মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের সনদ নং ম-৫১৪৩৯, মুক্তিবার্তা নং-০১০৯০৪১৪৫১।
পাঁচ সন্তানের জনক মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম শেখ জীবনের নানা চড়াই উতরাই পেরিয়ে জীবন যুদ্ধে এখন এক পরাজিত সৈনিক। ১৯৭১ সালে দেশ রক্ষায় স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশ গ্রহণ কওে ছিলেন। আজ তিনি অর্থাভাবে নিজের জীবন রক্ষায় নিরুপায়। এক শতাংশ জমিও নেই যা বিক্রি করে তিনি চিকিৎসা নিবেন। সরকারি জায়গায় পরিবার নিয়ে বসবাস করে করেন। সামান্য মুক্তিযোদ্ধার ভাতা দিয়ে কোন মতে সংসার চলে। উন্নত চিকিৎসার জন্য অনেক টাকার প্রয়োজন। ব্যয়বহুল চিকিৎসার খরচ যোগানো তার পরিবারের পক্ষে সম্ভব না।
শহিদুল ইসলামের স্ত্রী জয়নাব বেগম জানান, গত ৮ মাস আগে অসুস্থ হলে তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেয়া হয়। তার শরীরে ক্যান্সার হয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। যা খুব দ্রুত এবং উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন। কিন্তু অর্থের অভাবে উন্নত চিকিৎসা করাতে পারছি না। বাড়িতে রেখে ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী ওষুধ খাওয়াচ্ছি। প্রধানমন্ত্রীসহ সমাজের বিত্তবানদের সাহায্য কামনা করেন তিনি।
কাশিয়ানী উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো: ইনায়েত হোসেন বলেন, তার শারীরিক অবস্থা ভাল না। তাকে বাঁচাতে হলে সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসতে হবে।

Inline
Inline