গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় ভাতার টাকা ইউপি সদস্যের পকেটে

এম শিমুল খান, গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় বয়স্ক ও বিধবা ভাতার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এক ইউপি মেম্বার। প্রায় ৩০ জন কার্ডধারীর কাছ থেকে ২ লক্ষ টাকা ওই ইউপি সদস্য নিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানা গেছে, কোটালীপাড়া উপজেলার সাদুল্লাপুর ইউনিয়নের মহিলা মেম্বার শেফালী হালদার চলতি বছরে তার সংরক্ষিত ওয়ার্ডে বিতরণের জন্য ৩০টি কার্ড পেয়ে ছিলেন। তিনি ওই কার্ড বিতরণে প্রতি কার্ডধারীর কাছ থেকে ২ হাজার করে টাকা নেয়।

গত ২৯ আগস্ট প্রতি কার্ডধারী কৃষি ব্যাংক রাধাগঞ্জ শাখা থেকে ৬ হাজার করে টাকা উত্তোলন করেন। ব্যাংক থেকে কার্ডধারীরা ভাতার টাকা নিয়ে বের হওয়ার পর এক রকম জোর করে শেফালী হালদার ৫ হাজার করে টাকা নিয়ে নেয়।

পীড়ারবাড়ী গ্রামের কার্ডধারী নেরোদা হালদার(৭১) বলেন, বয়স্ক ভাতার ৬ হাজার টাকা পেয়ে ছিলাম। ব্যাংক থেকে ভাতার টাকা নিয়ে বের হওয়ার পর শেফালী হালদার আমার কাছ থেকে জোর করে ৫ হাজার টাকা নিয়ে গেছে।

একই গ্রামের মিনু ঢালী(৭০), শোভা রাণী বাড়ৈ(৬৯) বলেন, কার্ড দেবার আগে শেফালী মেম্বার আমাদের কাছ থেকে ২ হাজার করে টাকা নিয়েছে। ভাতার টাকা উত্তোলনের পর সে আরো ৫ হাজার টাকা করে নিয়েছে।

এ বিষয়ে মেম্বার শেফালী হালদারের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি কোন প্রকার মন্তব্য বা বক্তব্য দিতে রাজি হয়নি।

এ ব্যাপারে কোটালীপাড়া উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা মো: জহুরুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে উর্ধ্বতন কর্মকর্তার সাথে আলোচনা করে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।