গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে পুলিশের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী থানার রামদিয়া পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) শামীম উদ্দিনের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দূর্নীতির প্রতিবাদ এবং তার অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন করেছে স্থানীয়রা। রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার রামদিয়া সরকারি এসকে কলেজ গেটের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বিভিন্ন গ্রামের প্রায় দেড় শতাধিক লোক অংশ নেয়।
এ সময় বক্তারা বলেন, এস আই শামীম উদ্দিন সেনা সদস্য বশির আহমেদকে উস্কানী দিয়ে তার স্ত্রীকে দিয়ে এলাকার নিরীহ লোকজনকে মামলা দিয়ে হয়রানী করছে। এমনকি ওই সেনা সদস্যের স্ত্রীর পক্ষ নিয়ে স্থানীয়দের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও হুশিয়ারী দেন এস আই শামীম। তিনি নিজ হাতে নির্দেশিকা ম্যাপ একে ভূমি সংক্রান্ত বিষয় সিদ্ধান্ত দেন। শুধু তাই নয়, এস আই শামীম স্থানীয়দের কাছে মোটা অংকের উৎকোচ দাবি করে না পেয়ে স্থানীয়দের কোর্টে নিয়ে দেখে ছাড়বে বলে হুমকি দেয়। এর কয়েকদিন পরেই ওই নারী পুলিশের উস্কানীতে আদালতে ৯ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন বলে অভিযোগ উঠেছে।
বক্তারা আরো বলেন, এস আই শামীম উদ্দিন মামলা বাদী হুসনা বেগমকে সঙ্গে নিয়ে আসামীর বাড়ীতে তদন্ত করতে যান। এ সময় আসামী এস আই শামীমের সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি আসামীদের কোন পাত্তা দেন না। বরং তিনি হুসনা বেগমের সাফাই গান। ঘটনাস্থলের আশপাশের কারোর কথা না শুনে ওই নারীর পক্ষে আদালতে মিথ্যা প্রতিবেদন দাখিল করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। তারা এস আই শামীমের শাস্তির দাবীতে বিভাগীয় তদন্তের জোর দাবীও জানান।
এ ব্যাপারে এস আই শামীম উদ্দিন তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ওয়াহিদা রহমান হুসনা নামে এক নারী আদালতে একটি সি,আর মামলা দায়ের করেন। আমি সরেজমিনে গিয়ে তদন্ত করে প্রতিবেদন আদালতে পাঠিয়ে দিয়েছি। সত্য-মিথ্যা আদালত প্রমাণ করবে।