গাজীপুরে নির্বাচনী প্রচারনায় গিয়ে একই মসজিদে নামাজ পড়লেন আওয়ামী লীগ-বিএনপি নেতৃবৃন্দ

গাজীপুর থেকে আনোয়ারুল আলম শাহীন ও মিন্টু শেখ: গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রচারে গিয়ে একই মসজিদে নামাজ পড়লের পরস্পরের প্রতিদ্বন্দ্বী দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতারা।
ভোটের ময়দানে একে অপরের সমালোচনাকারী দুই পক্ষের একই কাতারে দাঁড়িয়ে নামাজ আদায়ের বিষয়টি ওই এলাকায় আলোচনার খোরাক তৈরি করেছে।
আগামী মঙ্গলবারের ভোটকে সামনে রেখে এখন জমজমাট প্রচারে ব্যস্ত দুই প্রধান দল আওয়ামী লীগ আর বিএনপি। ভোটারদের কাছে যাওয়ার সুযোগ আছে আর দুই দিন। এই অবস্থায় সাপ্তাহিক ছুটির দিন শুক্রবার সকালে দুই দলের স্থানীয় নেতাদের পাশাপাশি ঢাকা থেকে যান কেন্দ্রীয় নেতারা।
দুপুরে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুর রহমান মিলন এবং তাদের সহযোগীরা ছিলেন গাজীপুর শহরে।
জুমার নামাজ পড়তে নেতাদের সবাই গাজীপুর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে ঢুকেন। আর নেতাদেরকে দেখে চমৎকৃত হন মুসল্লিরা।
নামাজ শেষে মুসল্লিদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন দুই দলের নেতারা। সেখানে মুসল্লিরা তাদের সঙ্গে ছবিও তোলেন।

আওয়ামী লীগ নেতা মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, ‘এই সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশ প্রমাণ করে বর্তমান সরকার একটি নিরপেক্ষ, গ্রহণযোগ্য ও অংশগ্রহণমূলক পরিবেশে নির্বাচন করতে বদ্ধপরিকর। গাজীপুরে একটি চমৎকার এবং উৎসবমূখর পরিবেশ বজায় রয়েছে।’
গাজীপুরে ভোট হওয়ার কথা ছিল গত ১৫ মে। কিন্তু সীমান্ জটিলতার কারণ দেখিয়ে উচ্চ আদালতে করা এক রিট আবেদনে ভোট পিছিয়ে ২৬ জুন নির্ধারণ হয়েছে।
একজন মেয়র এবং ৫৭টি ওয়ার্ডে ৫৭ জন সাধারণ কাউন্সিলর এবং ১৯ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ভোট দেবেন সাড়ে ১১ লাখেরও বেশি ভোটার।
মেয়র পদে মূল লড়াইয়ে আছেন নৌকা মার্কা নিয়ে আওয়ামী লীগের জাহাঙ্গীর আলম আর বিএনপিতে ধানের শীষ নিয়ে আছেন হাসান উদ্দিন সরকার।