গাজীপুরের শ্রীপুরে সোনার দোকানে ডাকাতি

গাজীপুরের শ্রীপুর পৌর শহরের একটি সোনার দোকানে ডাকাতি হয়েছে। শনিবার মধ্যরাতে ‘অন্তি অরুন সেন শিল্পালয়ে’ এ ডাকাতি হয়।

ঘটনার সময় ডাকাতেরা বাজারের দুইজন প্রহরীর আব্দুল খালেক ও আলাল উদ্দিনকে হাত-পা ও মুখ বেঁধে জিম্মি করে ডাকাতি করে। পরে দোকান মালিক এ ঘটনায় চেতনা হারিয়ে ফেলায় ডাকাতি হওয়া মালামালের পরিমাণ জানা যায়নি।

বাজার পাহারাদাররা জানায়, তারা রাতে বাজারের বিভিন্ন দোকানের নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করা অবস্থায় মধ্য বাজারের পশু হাসপাতাল সড়কের দুই পাশ থেকে চারজন করে আটজন লোক এসে মুহূর্তে তাদের রাম দা দেখিয়ে জিম্মি করে ফেলে। পরে তাদের হাত, পা ও মুখ বেঁধে রাস্তার পাশের তেঁতুল গাছের নিচে ফেলে রাখে। এসময় প্রহরীদের বাঁশি ও লাঠি নিয়ে ডাকাতেরা প্রহরীর কাজ শুরু করে। এসময় ডাকাতদের আরও কমপক্ষে ১৫ জন সহযোগী তালা ভেঙে দোকানে ঢুকে। রাত ২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত তারা ডাকাতি করে। এসময় বাজারের অপর এক চা বিক্রেতা আব্দুল আলী এ সড়ক দিয়ে যাওয়ার সময় তাকেও সহযোগী ডাকাতেরা হাত, পা ও মুখ বেঁধে রাস্তার পাশে ফেলে রাখে।

শিল্পালয়ের মালিকের ভাই সজীব সেন জানান, ডাকাতেরা এসময় দোকানের তিনটি সিন্দুক ভেঙে সকল প্রকার স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা লুটে নেয়। ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে প্রহরীদের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে যায়। এসময় দোকানের মালিক দীপক সেন ঘটনা শুনে চেতনা হারিয়ে ফেলেন। পরে তাকে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়।

শ্রীপুর বাজার ব্যবসায়ী নিরাপত্তা পরিচালনা কমিটির সভাপতি রুহুল আমীন খান রতন ও সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সোহাগ বলেন, প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী তিনটি সিন্দুক ভেঙে ডাকাতির ঘটনা শ্রীপুর বাজারে কখনো হয়নি।

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক মফিজুর রহমান মোল্লা জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় প্রহরী ও অন্যান্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

Inline
Inline