গভীর রাতে কালকিনির মেয়রের ওপর দুর্বৃত্তদের হামলা

মাদারীপুর সংবাদদাতা : মাদারীপুরের কালকিনি পৌরসভার মেয়র এনায়েত হোসেন হাওলাদারের হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার গভীর রাতে নিজ বাড়িতে ঘুমন্ত অবস্থায় হামলার শিকার হন মেয়র। পরে আহত মেয়রকে কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

আহত মেয়র ও তার পরিবারের সদস্যরা জানান, শনিবার রাত দুইটার দিকে মেয়র এনায়েত হোসেন ঘুমিয়ে ছিলেন। এ সময় একটি মাইক্রোবাস ও দুটি মোটরসাইকেল যোগে ১০ থেকে ১২ জন মুখোশপরা দুর্বৃত্ত বাড়ির পেছনের গেইট ভেঙে ভেতরে ঢুকে। এসময় তারা মেয়রের ঘুমানো কক্ষের জানলা ভেঙে ঘুমন্ত মেয়রকে রাম-দা দিয়ে মাথায় আঘাত করে। এতে মেয়র তাৎক্ষণিক তার বিছানায় থাকা শর্ট গান দিয়ে গুলি করেন। এ সময় দুর্বৃত্তরা কয়েকটি বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে পরিবারের অন্য সদস্যরা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে কালকিনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। তার মাথায় ও হাতে জখম লেগেছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন কালকিনি উপজেলা চেয়ারম্যান তৌফিকুজ্জামান শাহীন, মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন কুমার দেব, কালকিনি থানার অফিসার ইনচার্জ কৃপা সিন্দু বালা, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মীর মামুনুর রশীদ, সরদার লোকমান হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট ওবাইদুর রহমান সোহেল তালুকদারসহ হাজার হাজার গ্রামবাসী।

আহত মেয়র এনায়েত হোসেন হাওলাদার বলেন, ‘পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে এই ঘটনা ঘটিয়েছে। তবে আমার কাছে শর্টগান থাকায় দুর্বৃত্তরা মারাত্মক কিছু করতে পারেনি। এই ঘটনার সাথে আমার প্রতিপক্ষরা জড়িত বলে সন্দেহ করছি। এব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, ঘটনার পর তাৎক্ষণিক আমরা মেয়রের বাড়ি সংলগ্ন এলাকায় পুলিশ মোতায়ন করেছি। মেয়রের পরিবার থেকে মামলা দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া কালকিনি উপজেলায়ও অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

Inline
Inline