খুলনায় শিশু ধর্ষণ মামলায় আসামির যাবজ্জীবন

খুলনা সংবাদদাতা : খুলনা নগরীর খালিশপুর হাউজিং স্ট্রেট এলাকায় ১৩ বছর বয়সী শিশু কন্যা ধর্ষণ মামলার এক আসামিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে খুলনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক মোহাম্মদ মহিদুজ্জামান এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন, বরিশাল জেলার গৌরনদী উপজেলার লল সিন্দালপট্রি গ্রামে শাজাহানের ছেলে জালাল (২৫)। বর্তমানে আসামি জালাল পলাতক রয়েছেন।

আদালতের সহ বেঞ্চ সহকারী এসএম বদিউজ্জামান নথীর বরাত দিয়ে জানান, ক্রিসেন্ট জুট মিলে চাকরির সুবাদে গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানি উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামের তোতা মিয়া স্ত্রী ও তিনকণ্যা নিয়ে বসবাস করেন খালিশপুর হাউজিং স্ট্রেট এন/জে-১৭ কলোনিতে। ১৯৯৯ সালের ১৪ এপ্রিল তোতা মিয়ার ভাড়াটিয়া জালাল তার ১৩বছরের মেয়েকে নিয়ে বেড়ানোর কথা বলে বাইরে নিয়ে যায়।

দুপুর একটার দিকে মেয়ে বাড়ি ফিরে এসে জানায় তাকে জালাল ও আরও একজন প্লাটিনাম কাচা কলোনির ভেতর নিয়ে ধর্ষণ করেছে।

এ ঘটনায় মেয়েটির মা মমতাজ বেগম বাদী হয়ে খালিশপুর থানায় অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। ওই বছরের তিন সেপ্টেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই রেজাউল করিম আদালতে জালাল ও আরও একজন অজ্ঞাত ব্যাক্তিকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দাখিল করেন। রাস্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট সুমন্ত কুমার বিশ্বাস এবং স্ট্রেট ডিফেন্স ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. মিকাইল হোসেন।