খালেদার মুক্তির দাবিতে কর্মসূচির স্থান জানাল বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক : দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের দণ্ড পেয়ে কারাগারে থাকা দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তার সুচিকিৎসার দাবিতে ঘোষিত নতুন কর্মসূচি পালনের স্থান জানিয়েছে দলটি।

ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী আগামী বুধবার বিকালে নয়াপল্টনে বিক্ষোভ সমাবেশ এবং ৯ জুলাই রাজধানীর ইন্সটিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ার্স-বাংলাদেশ অথবা মহানগর নাট্যমঞ্চে প্রতীকী অনশন করবে দলটি।

মঙ্গলবার সকালে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে কর্মসূচি পালনের স্থানের কথা ঘোষণা করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত। এর প্রতিবাদে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে বিএনপি।

রায়ের পর খালেদার মুক্তির দাবিতে বিএনপি এখন অবধি যতগুলো কর্মসূচি পালন করেছিল তার প্রতিটিই ছিল ‘শান্তিপূর্ণ’।

রায়ের দিন মির্জা ফখরুল বলেছিলেন, খালেদা জিয়া তাদেরকে হঠকারী কোনো কর্মসূচি দিতে নিষেধ করেছেন। এ কারণেই ‘শান্তিপূর্ণ’ কর্মসূচি পালন করবেন তারা।

আজকের সংবাদ সম্মেলনে রিজভী বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে দলের মহাসচিব বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ সমাবেশ এবং ৯ জুলাই সোমবার দেশব্যাপী প্রতীকী অনশন কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন।’

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ঢাকায় নয়াপল্টনস্থ দলীয় কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বেলা তিনটায় বিক্ষোভ সমাবেশের জন্য ইতোমধ্যে পুলিশ কমিশনার ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বরাবরে অবহিতপত্র জমা দেয়া হয়েছে।

আগামী ৯ জুলাই সকাল নয়টা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত প্রতীকী অনশন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান তিনি।

রিজভী বলেন, ‘আমরা ইতোমধ্যে রমনাস্থ ইন্সটিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ার্স-বাংলাদেশ এবং মহানগর নাট্যমঞ্চে যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট আবেদন করেছি। এই দু’টি স্থানের মধ্যে যেকোনো একটিতে আমাদের প্রতীকী অনশন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে।’