খালেদাকে বাধা দিয়ে নিজেদের ক্ষতি করব কেন: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কক্সবাজার যাত্রায় আওয়ামী লীগ কোনোভাবেই বাধা দেয়নি বলে দাবি করেছেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ফেনীতে খালেদার বহরে হামলায় ক্ষমতাসীন দলের নেতা-কর্মীদের সম্পৃক্ততার বিষয়ে বিএনপির অভিযোগের মধ্যেই তিনি বলেছেন, এই সফরে খালেদা জিয়ার জন্য নানা সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।
রবিবার বিকালে রাজধানীর তেজগাঁও ট্রাক টার্মিনালে নিরাপদ সড়ক দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মালিক –শ্রমিক ঐক্য পরিষদ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
রোহিঙ্গাদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণে শনিবার ঢাকা থেকে কক্সবাজার অভিমুখে রওয়ানা হন খালেদা জিয়া। ফেনীতে তার বহরে গণমাধ্যম কর্মীদের বহনকারী একাধিক গাড়িতে হামলা হয়। বিএনপি এই হামলার জন্য আওয়ামী লীগকে দায়ী করলেও ওবায়দুল কাদের সকালে সংবাদ সম্মেলন করে বলেছেন, ‘বড় নিউজ’ নিশ্চিত করতে বিএনপিরই দুই সংগঠন ছাত্রদল ও যুবদলের কর্মীরাই এই হামলা করেছে।
বিকালে রাজধানীতে পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের সমাবেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা সরকারি দল। দেশ শান্তিতে চলছে। কি প্রয়োজন বেগম জিয়াকে বাধা দিয়ে আমাদের নিজেদের ক্ষতি করা? এটাতো সরকার ও আমাদের রুলিং পার্টির ক্ষতি। আমরা কেন আমাদের ক্ষতি ডেকে আনবো?’
সরকার খালেদা জিয়ার সফরে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে বলেও দাবি করেন ওবায়দুল কাদের। বলেন, ‘আমরা সারা পথে তাঁর খবর নিয়েছি। চকোরিয়ায় রেস্ট হাউজ দেয়ার জন্য আমি বলেছি, পথে তাদের দেরি হলে খাবারের ব্যবস্থা করার জন্যও আমি বলেছি।’
আমরা সন্মান করতে জানি। আপনারা অধম হলে, আমরা উত্তম হবো না কেন?’-এমন মন্তব্য করেন কাদের।
খালেদার এই সফরের সমালোচনাও করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দেয়ার নামে ঢাকা-চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক অচল করে দিয়েছেন। ত্রাণ দিয়ে আবার সড়ক পথে ঢাকায় ফিরবেন। এটাতো বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির পায়তারা।’
আপনি (খালেদা জিয়া) কত ত্রাণ দেবেন? অথচ শত শত ত্রাণের গাড়ির সরবরাহের পথ আপনি বন্ধ করে দিয়েছেন। এটা কোন রাজনৈতিক দায়িত্বশীলতার পরিচয়?’।
বিএনপি চেয়ারপারসনের জনপ্রিয়তার কারণে আওয়ামী লীগ ঈর্ষান্বিত- দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যেরও সমালোচনা করেন কাদের। বলেন, ‘জনপ্রিয়তা দেখাতে গিয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কেরও কোথাও পাঁচ হাজার জনগণের সমাবেশও হয়নি। যেখানে জনগণ নাই সেখানে জনপ্রিয়তা আসবে কোথা থেকে?
ফেনী থেকে চট্টগ্রামে খালেদা জিয়াকে রিসিভ করার জন্য কেউ ছিল না। এমন এক জনপ্রিয় নেত্রী, তাকে আমরা বাধা দিচ্ছি? আর আপনি জনপ্রিয়তার কথা বলেন?’-ফখরুলের কাছে জানতে চান কাদের।
বিএনপিকে গণঅভ্যূত্থানের স্বপ্ন দেখা বাদ দেয়ার পরামর্শ দেন আওয়ামী লীগ নেতা। বলেন, ‘অপেক্ষা করুন পরিবর্তন চাইলে আগামী নির্বাচনে দেশের জনগণ চাইলেই পরিবর্তন হবে। তার আগে গণঅভ্যূত্থান করে জনপ্রিয় শেখ হাসিনাকে হটাবেন, তা দুঃস্বপ্নের নামান্তর, তা দেখে লাভ নেই।’
তারা সকাল বিকাল স্বপ্ন দেখে আবার সেই স্বপ্ন সকাল বিকাল পরিবর্তন করে। কখনো বেগম জিয়া কাঁদে, কখনো ফখরুল কাঁদে। কান্নাকাটি ও প্রেসব্রিফিং করে মানুষের হৃদয় জয় করা যাবে না।’
বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মালিক –শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক রুস্তম আলী খানের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান, রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক প্রমুখ।