ক্ষেপণাস্ত্র ছাড়াই উ. কোরিয়ার কুচকাওয়াজ, প্রশংসা ট্রাম্পের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : দেশের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিশাল সামরিক কুচকাওয়াজের আয়োজন করে উত্তর কোরিয়া। রবিবার (৯ সেপ্টেম্বর) দেশটির রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ে অনুষ্ঠিত এ সামরিক মহড়ায় কোনো ক্ষেপণাস্ত্র প্রদর্শন করা হয়নি।

১৯৪৮ সালের ৯ সেপ্টেম্বর গণ প্রজাতান্ত্রিক কোরিয়া নামে প্রতিষ্ঠা লাভ করে উত্তর কোরিয়া। তারপর থেকে প্রতি বছরই জাঁকজমকভাবে দিবসটি পালন করে আসছে দেশটি।

তবে প্রতিবছরের চেয়ে এবারের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর সামরিক কুচকাওয়াজ ছিলো ব্যতিক্রম। কারণ এই প্রথমবারের মত কোনো ক্ষেপণাস্ত্র প্রদর্শন ছাড়ায় শেষ হয়েছে কুচকাওয়াজ। খবর সিএনবিসি ও চ্যানেল নিউজ এশিয়ার।

আর কুচকাওয়াজে ক্ষেপণাস্ত্র প্রদর্শন না করায় উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উনকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি তার প্রশংসা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

এরআগে চলতি বছর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ঐতিহাসিক বৈঠকে পরমাণু নিরস্ত্রকীরণের অঙ্গিকার করেন উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উন। এ বিষয়ে চুক্তিও স্বাক্ষরিত হয়।

যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যে মধ্যস্ততাকারী দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জা ইনের সঙ্গে দুইবার দীর্ঘ বৈঠক করেছেন কিম। এসব বৈঠকে এবং বৈঠকের পরও বারবার পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ ও কোরীয় উপদ্বীপে শান্তি প্রতিষ্ঠায় কাজ করার অঙ্গিকার ব্যক্ত করেছেন কিম।

চলতি মাসে তৃতীয়বারের মত বৈঠকে বসবেন দুই কোরীয় নেতা। পিয়ংইয়ংয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এই বৈঠকের আগে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র প্রদর্শন ছাড়া সামরিক কুচকাওয়াজ আয়োজন একটি ভালো দিক বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। এ ঘটনার পর দুই কোরীয় নেতার বৈঠক আরো ফলপ্রসু হবে বলে মনে করছেন তারা।