ক্যাব বোয়ালখালী উপজেলা কমিটির আলোচনা সভা

ক্যাব বোয়ালখালী উপজেলা কমিটির আলোচনা সভায় বক্তারা আইন প্রয়োগে দীর্ঘসুত্রিতা, কর্তৃপক্ষের অনীহার কারণে ভোক্তারা ভোগান্তির শিকার ও প্রতিকার থেকে বঞ্চিত
সাধারন জনগনের ভোক্তা অধিকার নিশ্চিত করতে সরকার ভোক্তা সংরক্ষন আইন ২০০৯ প্রণয়ন করেছেন, ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর প্রতিষ্ঠা করেছেন এছাড়াও স্বাস্থ্য, শিক্ষা, খাদ্য, প্রাণী, মৎস্য সম্পদ, বিএসটিআইসহ মাঠ পর্যায়ে অনেকগুলি দপ্তরের কার্যক্রম চলমান রয়েছে। কিন্তু ভোক্তাদের স্বার্থ সংরক্ষণে আইন ও বিধিবিধানগুলো প্রয়োগে দায়িত্বশীল সরকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর আইন প্রয়োগে ধীরচলো নীতি ও নানা অযুহাতে জনগনকে কাংখিত সেবা প্রাপ্তিতে বিঢ়ম্বনার কারনে জনগন সংবিধানে প্রদত্ত্ব সাংবিধানিক অধিকার গুলো পুরোপুরি ভোগ করতে পারছে না। যার কারনে ভোক্তা হিসাবে জীবন ও জীবিকার অধিকারগুলো লংগিত হলে, প্রতারিত, ভোগান্তির শিকার হলে আইনী প্রতিকার পাচ্ছে না। তাই সাধারন জনগনের মৌলিক অধিকার সুরক্ষায় বিদ্যমান আইনের কঠোর প্রয়োগ ছাড়া বিকল্প নেই। ০৩ এপ্রিল চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান’র কার্যালয়ে কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) বোয়ালখালী উপজেলা কমিটির সভায় বক্তাগন উপরোক্ত মন্তব্য করেন।
ক্যাব চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলা কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ক্যাব কেন্দ্রিয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এস এম নাজের হোসাইন, বিশেষ অতিথি ছিলেন বোয়ালখালী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাওলানা কাজী মুহাম্মদ ওবাইদুল হক হাক্কানী। ক্যাব বোয়ালখালী উপজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক এস এম শাহনেওয়াজ আলী মির্জার সঞ্চালনায় আলোচনায় অংশনেন আকতার কামাল চৌধুরী, শামশুল হুদা, সাংবাদিক নজরুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা ইস্কান্দর, শিক্ষক প্রলয় চৌধুরী মুক্তি, রনি বিশ্বাস, রানু মজুমদার, এম মুছিবুর রহমান চৌধুরী, হেলাল উদ্দীন লিপু, এস এম শাহেদ হোসাইন প্রমুখ।
সভায় বিভিন্ন বক্তাগন অভিযোগ করেন জগননের অজ্ঞতা, অসচেতনতা ও অসংগঠিত থাকার সুযোগে একশ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী ও প্রতারক চক্র নকল, ভেজালের স্বর্গ রাজ্যে পরিনত করে ফেলেছে। আর ভেজালের পরিধি এখন শুধু খাদ্যের সীমায় সীমিত নয়, এখন জীনবরক্ষা ওষুধ, শিক্ষা, গণপরিবহন, আর্থিক সেবা, বাসাভাড়া, গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানি, টেলিকম, ইন্টারনেট, চিকিৎসা ব্যবস্থাসহ জীবন- জীবিকার সবগুলো উপসর্গের রন্দ্রে রন্দ্রে পৌঁছেছে। আর প্রতারক, ভেজালকারীরা এতোই সংগঠিত ও শক্তিশালী তারা আইন প্রয়োগকারী কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় প্রশাসনকে প্রভাবিত করে বারবার বিভ্রান্ত করছে। তাই এখন প্রয়োজন সঠিক নেতৃত্বে সমাজের সচেতন ও বিবেকবান মানুষগুলোর ঐক্য এবং অধিকার আদায়ে সুসংগঠিত হওয়া। তৃণমূল পর্যায়ে মানবাধিকার রক্ষায় হাজারো সংগঠন গড়ে উঠলেও এখানেও প্রতারক চক্র এসমস্ত সংগঠনের নামেও নানা অপকর্ম করে যাচ্ছেন। যা তৃণমূলে মানুষের অধিকার সুরক্ষার পথে বড় অন্তরায়।
সভায় বোয়ালখালী উপজেলায় ক্যাব এর কর্মকান্ড জোরদার করার লক্ষ্যে আগামী রমজান মাসে প্রশাসন, ব্যবসায়ী ও ভোক্তাদের নিয়ে মতবিনিময় সভা করা, সচেতনতামূলক র‌্যালী, বাজার মনিটরিং নিশ্চিত, ভোক্তা অধিকার আইন ও নিরাপদ খাদ্য নিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সচেতনতা সভার আয়োজনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহন করা হয়। একই সাথে ক্যাব বোয়ালখালী উপজেলা কমিটির বর্তমান কমিটির পরিধি বাড়িয়ে ৫১ সদস্য বিশিষ্ঠ উপজেলা কমিটি পুনঃগঠন করা হয়। ( বিজ্ঞপ্তি)