কৃষকলীগের দুলাল কে হত্যা প্রচেষ্টার অভিযোগ, দায়ীদের গ্রেফতার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

জাহিদুর রহমান তারেক, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি : কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম দুলালের উপর একদল দুর্বৃত্ত হামলা চালিয়ে তাকে হত্যার চেষ্টা করছিল বলে অভিযোগ উঠেছে। এদিকে দায়ীদের গ্রেফতার দাবি ও পুলিশের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছে কৃষকলীগ নেতা ও বিশ্বাস বিল্ডার্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নজরুল ইসলাম দুলাল। নিজ বাসভবন ঝিনাইদহের শৈলকুপার পাঁচপাখিয়া গ্রামে আজ লিখিত এক জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, ইদের আগের সন্ধ্যায় ইফতারের পূর্বমুহূর্তে কয়েক যুবক অস্ত্র সহ তার গ্রামের বাড়ি শৈলকুপার পাঁচপাখিয়াতে প্রবেশ করে। এসময় কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় নেতা নজরুল ইসলাম দুলাল তার কর্মীদেরসহ ইফতারের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। পিস্তলসহ বাড়িতে প্রবেশের পর কর্মীদের বাঁধার মুখে পড়ে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায় তবে আলী হোসেন, সেকেন্দার আলী ও আজমত আলী নামের ৩ জন ধরা পড়ে যায়। তাদের কাছ থেকে একটি পিস্তল পাওয়া যায়। পুলিশ খবর পেয়ে ৩ জন কে থানায় নিয়ে আসে তবে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর তাদের ছেড়ে দেয়। এদিকে কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ও বিশ্বাস বিল্ডার্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নজরুল ইসলাম দুলালের অভিযোগ তার উপর হামলাকারীদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি উদ্যোগ না নিয়ে পুলিশ ছেড়ে দিয়েছে। তাদের কাছ থেকে অস্ত্র পাওয়া গেলেও কোন মামলা নেয়া হয়নি। শৈলকুপা থানার ওসি আলমগীর হোসেন পুলিশ বাদি মামলা নেয়া হবে বলে আশ্বাস দিলেও তা নেন নি বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়েছে। আগামী সংসদ নির্বাচনে ঝিনাইদহ-১ শৈলকুপা আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী এ নেতা সংবাদ সম্মেলন করে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। তিনি ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের সামনে জনাকীর্ণ এ সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেছেন রাজনীতির মাঠে তার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি মহল এমন ষড়যন্ত্র করতে পারে। তিনি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও দোষীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন। সংবাদ সম্মেলনের সময়, ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি সাজেদুর রহমান সোম, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক সরোয়ার জাহান বাদশা, শৈলকুপা কৃষকলীগ সভাপতি জাহিদুন্নবী কালু, সাধারণ সম্পাদক মতিয়ার রহমান, কৃষক লীগের সহ- সভাপতি বাবলু জোয়ার্দ্দার, স্বেচ্ছাসেবক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এড. আজাদ রহমান, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক আহবায়ক ও সাবেক কমিশনার মুকুল, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমেদ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।