কুষ্টিয়ায় সাংবাদিকদের সঙ্গে পুলিশের মতবিনিয়ম

কুষ্টিয়া সংবাদদাতা : কুষ্টিয়ায় ২৪ ঘণ্টাই মানুষ পুলিশের সেবা পাবে উল্লেখ করে পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত বলেছেন, পুলিশের হয়রানি রোধ করে সাধারণ মানুষের সেবা করবে কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ।

‘যারা পুলিশের হয়রানির শিকার হয়েছেন বা সেবা পাচ্ছেন না আপনারা আমার কাছে সরাসরি আসুন, আপনাদের আমি সেবা দেবো। জেলার সকল মানুষের জন্য পুলিশি সেবা নিশ্চিত করবো।”

শনিবার সকাল ১১টায় কুষ্টিয়া পুলিশ লাইনস এ সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় কালে এ প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

পুলিশ সুপার মাদকের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষণা করেন। বলেন, কুষ্টিয়ায় কোন মাদক বিক্রেতা থাকবে না। মাদক এবং মাদক বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে জিরো ট্রলারেন্স নীতি অবলম্বন করা হবে। কুষ্টিয়া তথা দেশে থেকে মাদক নিশ্চিন্ন করে দেওয়া হবে।

ইতোমধ্যে আমরা জেলার মাদক বিক্রেতাদের একটি তালিকা তৈরি করেছি। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর মাদক কারবারি বা মাদকের সঙ্গে কোনো পুলিশ কর্মকর্তা যদি জড়িতে থাকেন তাহলে তার বিরুদ্ধে কঠোরতম ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কুষ্টিয়ায় একসময় সন্ত্রাসীদের অভয়আশ্রম ছিলো উল্লেখ করে পুলিশ সুপার বলেন, এই এলাকায় একাধিক চরমপন্থী ও সন্ত্রাসী বাহিনী ছিলো। তবে সেটা এখন আর নেই। যেটুকু রয়েছে তাদের একটি তালিকা প্রস্তুত করছি এবং বিরুদ্ধে অভিযান চলছে। তারা কোন ছাড় পাবে না। এসময় তিনি এসব কাজে জেলায় কর্মরত সাংবাদিকসেহ সমাজের সর্বস্তরের মানুষের সহযোগীতা কামনা করেন।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নূরানী ফেরদৌস দিশা, সার্কেল এসপি নুর-ই-আলম সিদ্দিকী, কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসির উদ্দিন, জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি ডিবি) সাবিরুল আলমসহ কুষ্টিয়ায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্টনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ ও পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা।

Inline
Inline