কুমিল্লা নগরীতে ভাড়াটিয়াকে গলাকেটে হত্যা

কুমিল্লা সংবাদদাতা : কুমিল্লার নগরীর নতুন চৌধুরী পাড়ার সুমন ভিলায় এক ভাড়াটিয়া যুবকের (২৫) গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
রবিবার সন্ধ্যায় পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। এ ঘটনায় বাড়ির তত্ত্বাবধানে থাকা কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সদ্য বিবিএ সম্পন্ন করা ছাত্র জুম্মানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। নতুন ভাড়াটিয়ারা এ হত্যাকান্ডের সাথে সম্পৃক্ত থাকতে পারেন বলে পুলিশের ধারণা। রাত সাড়ে ১০টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত নিহতের পরিচয় জানা যায়নি।
স্থানীয়রা, বাড়ির ভাড়াটিয়া ও আটক জুম্মানের আত্মীয় সূত্রে জানা যায়, বাড়ির মালিক প্রয়াত ইউপি চেয়ারম্যান আবু তাহেরের ছয় ছেলে ও চার মেয়েসহ সবাই স্ব-পরিবারে আমেরিকা থাকেন। সুমন ভিলার তত্ত্বাবধানের দায়িত্ব দেয়া হয় বাড়ির মালিকের ছেলে সুমনের শ্যালক জুম্মানকে। গতমাসে বাসার তৃতীয় তলার পশ্চিম দিকের ফ্লাটটি খালি হয়। গত বৃহস্পতিবার চারজন ভাড়াটিয়া এসে নিজেদের চাকরিজীবী বলে বাসাটি ভাড়া নেন এবং বাসার চাবি নিয়ে চলে যান। রবিবার সন্ধ্যায় জুম্মান বাসাটি পরিষ্কার করতে গেলে রক্ত দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশের একাধিক টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে। এসময় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জুম্মানকে আটক করে পুলিশ।
জুম্মানের ভাবী রাশেদা আক্তার জানান, বৃহস্পতিবার চারজন লোক এসে নিজেদের চাকরিজীবী বলে দাবি করলে তাদেরকে বাসা ভাড়া দিয়ে চাবি দিয়ে দেয়া হয়।

এ বিষয়ে কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সালাউদ্দিন জানান, লাশের পরিচয় শনাক্তকরণের চেষ্টা চলছে। খুনের রহস্য বের করার জন্য পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নমুনা সংগ্রহ করছে। লাশ রাতের মধ্যেই ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।