কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে ভ্যানচালককে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেফতার-১

নিজস্ব প্রতিনিধি : মাছ চুরির অভিযোগ এনে এক ভ্যানচালককে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বুধবার কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোট উপজেলার বাঙ্গড্ডা গ্রামের দক্ষিণ পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।
জানাগেছে, বাঙ্গড্ডা দিঘীর পশ্চিম পাশে একরামের মৎস্য খামার থেকে মাছ চুরির অভিযোগে গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ওই মৎস্য খামারের মালিক হাজী একরাম, তার ছেলে শাহপরান ও তাদের সাঙ্গপাঙ্গরা মিলে একই গ্রামের মনিরুজ্জামানের ছেলে মো. রিপন ওরফে ভেন্ডারকে (২০) ধরে খামারের ভিতরে আটকে রেখে এলোপাতাড়ী পিটিয়ে হত্যা করে। এরপর তার মরদেহটি ওই খামারের ষ্টোর রুমে তালাবদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে রিপনের স্বজনরা তাকে আনতে গেলে হাজী একরাম ও তার ছেলে শাহপরানসহ অন্যান্যরা তাদের হুমকি দমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়। তখন তার স্বজনদের জানানো হয় মাছ চুরির ঘটনার বিচার সকালে হবে এবং এরপর তাকে ছেড়ে দেয়া হবে। এ ঘটনার পর হাজী একরাম, তার ছেলে শাহপরান ও তাদের সাঙ্গপাঙ্গসহ ওই খামারের সব কর্মচারীরা পালিয়ে যায়। একপর্যায়ে এলাকাবাসী ও রিপনের স্বজনরা মিলে গতকাল বুধবার সকালে রিপনকে উদ্ধার করতে গিয়ে ওই খামারের ষ্টোর রুমের তালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে রিপনের মরদেহ দেখতে পায়। এসময় গ্রামবাসী স্থানীয় চেয়ারম্যান শাহাজাহান মজুমদার ও নাঙ্গলকোট থানায় খবর দেয়। বুধবার দুপুরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহত রিপনের সুরতহাল প্রতিবেদন করে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ প্রতিবেদন লেখার আগ মূহুর্ত পর্যন্ত লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়নি।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাঙ্গলকোট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আশ্রাফুল ইসলাম বলেন,
পুলিশ খবর পেয়ে নিহত রিপনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটানায় থানায় ৩০২/৩৪ ধারায় মামলা হয়েছে,মামলা নং-১৬, তাং-২৬-০৭-২০১৭ইং, পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত মহি উদ্দিন প্রকাশ মহিন কে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Inline
Inline