কাশ্মীরে হামলা : পাকিস্তান সফর পিছিয়ে দিলেন সৌদি যুবরাজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় প্রাণঘাতী হামলার পর ভারতের প্রতিবেশি দেশ পাকিস্তান সফর পিছিয়ে দিয়েছেন সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। দু’দিনের সফরে শনিবার পাকিস্তানে পৌঁছানোর কথা ছিল সৌদি এই যুবরাজের। কিন্তু দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রোববার থেকে সৌদি যুবরাজের পাকিস্তান সফর শুরু হবে।

যুবরাজের পাকিস্তান সফর পিছিয়ে দেয়ার কারণ সম্পর্কে জানায়নি সৌদি আরব। তবে দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো এখনো আগের মতোই রয়েছে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।

সৌদি যুবরাজের এই সফরের সঙ্গী হিসেবে রাজপরিবারের সদস্য, মন্ত্রী, ব্যবসায়ীসহ উচ্চ-প্রতিনিধি দল থাকবেন। ২০১৭ সালে সৌদির যুবরাজ হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর এই প্রথম পাকিস্তান সফর করছেন বিন সালমান। তার সফর ঘিরে পাকিস্তানের রাজধানী ইসলাবাদে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

তবে জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় ভয়াবহ জঙ্গি হামলায় ৪০ সিআরপিএফ সদস্যের প্রাণহানির পর পাকিস্তান সফর পিছিয়ে দেয়ার বিবৃতি প্রকাশ করেছে সৌদির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বিবৃতিতে কাশ্মীরের ওই হামলার ঘটনায় কড়া নিন্দা জানায় সৌদি।

পাকিস্তান সমর্থিত জম্মু-কাশ্মীরের স্বাধীনতাকামী বিদ্রোহীদের সংগঠন জয়েশ-ই-মোহাম্মদের সদস্যরা বৃহস্পতিবারের ওই হামলার দায় নিয়েছে।

হামলার নিন্দা জানিয়ে সন্ত্রাসবাদ এবং চরমপন্থার বিরুদ্ধে ভারতের নেয়া পদক্ষেপে সৌদি আরবের সমর্থন থাকবে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়। একই সঙ্গে হামলায় নিহতদের স্বজনদের প্রতি সমবেদনা ও আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করা হয়।

যুবরাজের এই সফরের মাধ্যমে কয়েক দশকের সৌদি অনুদান নির্ভরতা থেকে বেরিয়ে এসে রিয়াদের সঙ্গে কয়েকশ বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ চুক্তি করতে যাচ্ছে ইসলামাবাদ। দেশটির গোয়াদার বন্দরে মাল্টিবিলিয়ন ডলারের তেল শোধনাগার নির্মাণ চুক্তি স্বাক্ষরের কথাও রয়েছে।

পাকিস্তান সফর শেষে দু’দিনের সফরে ১৯ ফেব্রুয়ারি ভারতে যাবেন যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান।

সূত্র : ডন, ইন্ডিয়া ট্যুডে।