কালীগঞ্জে জমি নিয়ে মামলা

কালীগঞ্জ(গাজীপুর) প্রতিনিধি : আমাদের দেশে খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীদের উত্তরাধিকারী হওয়ার ক্ষেত্রে ছেলে এবং মেয়ে একই মর্যাদার অধিকারী, অর্থাৎ মৃত ব্যক্তির সম্পত্তিতে তারা সমান অংশ লাভ করে৷ গাজীপুর, কালীগঞ্জ থানাধীন দড়িপাড়া গ্রামের তিতুস ডি কস্তা এবং বেঞ্জামিন কস্তা গংরা বাদী হয়ে বাংলাদেশ খ্রিস্টান আইন অনুযায়ী ওয়ারিশ সূত্রে জমির মালিক স্টিফেন কস্তা (গ্রাম তুমিলিয়া),মনোহর কস্তা (গ্রাম-দড়িপাড়া) গংদের বিবাদী করে ২০১৩ খ্রিস্টাব্দে বিজ্ঞ সিনিয়র জজ ৫ম আদালত গাজীপুরে দেঃমোঃ নং ১০৪,১৫৬ এবং ২০১৫ খ্রিস্টাব্দে বিজ্ঞ সিনিয়র সহকারী জজ ৫ম আদালত গাজীপুরে দেঃমোঃ নং ৩১,৩২ দায়ের করেন।মামলা দায়ের করার পর তিতুস ডি কস্তা এবং বেঞ্জামিন কস্তা গংরা জমিতে দাগ,খতিয়ান ও মামলা নং উল্লেখ করে একটি সাইনবোর্ড স্থাপন করেন।সাইনবোর্ডে এটাও লেখা হয় যে মামলা চলাকালীন সময় কোন প্রকারেই জমি বেচা-কেনা করা যাবেনা।পরবর্তীতে বাদী পক্ষ গোপনে জমি বিক্রিয় করছে এই খবরটি বিবাদী পক্ষ জানার সাথে সাথে, বাদী পক্ষকে জমি বিক্রি করতে নিষেধ করা সত্যেও আইনভঙ্গ করে তারা ইতমধ্যে ৭ শতাংশ জমি বিক্রি করেছেন।উক্ত বর্ণিত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ২০/১০/২০১৯ খ্রিস্টাব্দ রবিবার দুপুর ১ ঘটিকায় বিবাদী পক্ষ দড়িপাড়া গ্রামে স্বশরীরে উপস্তিত হয়ে জমির দাগ,খতিয়ান, পরিমাণ ও জমির মালিকানা উল্লেখ করে মামলা চলাকালীন সময় যেন কোন প্রকারেই জমি বিক্রি করা না হয় সেই জন্য জমিতে একটি সাইনবোর্ড স্থাপন করেন।বিজ্ঞ আদালতের কাছে ন্যায়বিচার পাবে বলে আশাবাদী বিবাদী পক্ষ। এখানে উল্লেখ্য থাকে যে বাদী তিতুস ডি কস্তা ইতমধ্যে প্রয়াত হয়েছেন।