কপোতাক্ষের ক্রসড্যাম সঠিকভাবে অপসারণ না করার কারনে, পার্শ্ববর্তী এলাকা প্লাবণ ঝুকিতে

এসএম বাচ্চু, তালা (সাতক্ষীরা) সংবাদদাতা : তালা উপজেলার পাখিমারা বিলের টিআরএম প্রকল্পের পলি ব্যবস্থাপনার জন্য কপোতাক্ষ নদীতে পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক স্থাপনকৃত ক্রসড্যাম এখন অত্র এলাকার জনগনের গলার কাটায় পরিনত হয়েছে।
শুক্রবার সরজমিন পরিদর্শনকালে দেখা যায়, টিআরএম প্রকল্পের পলি ব্যবস্থাপনার জন্য কপোতাক্ষ নদীতে পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক স্থাপনকৃত ক্রসড্যাম সঠিকভাবে অপসারণ না করায় নদীতে প্রবল শ্রোত থাকার কারনে পানি নদীর পশ্চিম (বালিয়া, শুভঙ্করকাটী, শ্রীমন্তকাটী) তীরে আঘাত হেনে রাস্তা ভেঙ্গে ফসলী জমি ও জনবসতিপূর্ন এলাকায় ঢুকে পড়ছে। পানি প্রবেশ রোধকল্পে স্থানীয় জনগন রাস্তার ভেতরের ভেড়ি বাঁধ নির্মান করছে।
স্থানীয় বাসিন্দা শেখ এখলাস আলী, জাকির হোসেন সানা, মোসলেম হাজরাসহ অনেকেই জানিয়েছেন, ক্রসড্যাম বাঁধ সঠিকভাবে অপসারণ না করলে ৬/৭ শত বিঘা জমিতে ধান চাষ ব্যাহত হবে এবং এ বাঁধ সংলগ্ন এলাকা প্লাবিত হবে।
এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসও জনাব ফিরোজ হোসেনের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ওখানে বাঁধ অপসারণের জন্য লেবাররা কাজ করছে। কোন লেবারকে কাজ করতে দেখা যাচ্ছে না বলে জানালে তিনি বলেন, ৩ দিন কাজ হয়েছিলো বলে জানি। বিষয়টি আমি দেখছি- বলেও জানান তিনি। ভেঙ্গে যাওয়া নদীর তীরবর্তী রাস্তা নির্মানের কাজ করবেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঐ রাস্তা বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন কর্তৃক নির্মিত। তাই কাজটি কে করবে, তা বলতে পারছি না। তবে, আমি চাই ঐ রাস্তাটিও হোক। এ ব্যাপারে আমি আমার উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলবো।
উল্লেখ্য যে, টিআরএম বিলে পলি ব্যবস্থাপনার জন্য ক্রসড্যাম বাঁধ নির্মাণ করার কথা থাকলেও তা না করায় প্রতিবাদ জানিয়ে সাংবাদিকদের লেখনির ফলে প্রকল্পের শেষ দিকে তা নির্মাণ করা হয়। এলাকাবাসী ক্রসড্যাম বাঁধের পাইলিং, তার, বালুর বস্তা সঠিকভাবে অপসারণ করে নদী ভাঙ্গন রোধ ও প্লাবন ঝুঁকি থেকে তাদের বাঁচাতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।