এসএমই খাতের বড় সমস্যা অর্থায়ন: শিল্পমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (এসএমই) খাতের বড় সমস্যা অর্থায়ন উল্লেখ করে শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, বিষয়টি সমাধানে সরকার কাজ করছে। আশা করছি দ্রুত এ সমস্যা কেটে যাবে।

শনিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত জাতীয় শিল্প মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

শিল্প সচিব মো. আবদুল হালিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার, বাংলাদেশ চেম্বার অব ইন্ডাস্ট্রিজের (বিসিআই) সভাপতি আনোয়ার-উল-আলম চৌধুরী।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, সরকার নিজে ব্যবসা করবে না; তবে ব্যবসা ও উৎপাদনবান্ধব পরিবেশ তৈরিতে সহায়তা করবে। শিল্প মন্ত্রণালয় টেকসই শিল্প খাতের বিকাশে অনুঘটকের ভূমিকা পালন করছে। উদ্যোক্তারা যেখানেই সমস্যায় পড়ছেন, সেখানেই শিল্প মন্ত্রণালয় সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর অর্থনৈতিক মুক্তির স্বপ্ন বাস্তবায়নের আগ পর্যন্ত শিল্প খাতের বিকাশে শিল্প মন্ত্রণালয়ের সহায়তা অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, দক্ষ বেসরকারি খাত গড়ে তুলতে শিল্প মন্ত্রণালয় পরিকল্পিতভাবে কাজ করে যাচ্ছে। উদ্যোক্তাদের সহজ শর্তে ঋণ ও নারী উদ্যোক্তাদের জন্য জামানতবিহীন ঋণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর পাশাপাশি উদ্যোক্তা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ, পণ্য বৈচিত্র্যকরণ, বাজার লিংকেজ স্থাপন, প্রকল্প গ্রহণ সহায়তা, ডিজাইন ও নকশা উন্নয়নসহ বিভিন্ন ধরনের নীতিসহায়তা প্রদান অব্যাহত রয়েছে।

অর্থায়নকে এসএমই খাতের বড় সমস্যা হিসেবে উল্লেখ করে দ্রুত এটি কেটে যাবে বলে মন্তব্য করেন শিল্পমন্ত্রী। তিনি মেলায় অংশগ্রহণকারী উদ্যোক্তাদের পণ্যের গুণগত মানোন্নয়ন এবং পণ্য বৈচিত্র্যকরণের তাগিদ দেন।

শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, টেকসই শিল্পায়নের জন্য শ্রমিক দক্ষতা উন্নয়ন জরুরি। শিল্প খাতে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে বিটাকের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম জেলা পর্যায়ে সম্প্রসারণ করা হবে। তিনি সরকারের উদ্যোগের পাশাপাশি বেসরকারি উদ্যোক্তাদেরও দক্ষতা উন্নয়নধর্মী প্রশিক্ষণ সম্প্রসারণের পরামর্শ দেন।

পরে মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের স্টলের সাজসজ্জা, উদ্যোক্তাদের ব্যক্তিত্ব, পণ্যের মান, বিক্রির ওপর ভিত্তি করে ৮টি ক্যাটাগরিতে মোট ২৪টি উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধির হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়।