এরশাদ শুধু ভাই না, বাবা ও শিক্ষক ছিলেন

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছেন, এরশাদ শুধু আমার ভাই ছিলেন না। তিনি ছিলেন, আমার বাবার মতো আবার কখনও শিক্ষক। তিনি আমাকে টাই বাঁধতে শিখিয়েছেন। কাটা চামচ ব্যবহার শিখিয়েছেন। আবার রাজনৈতিক শিক্ষাও দিয়েছেন।

বুধবার বিকেলে গুলশান আজাদ মসজিদে প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কুলখানিতে কাতরকণ্ঠে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

জিএম কাদের বলেন, আমি যখন রাজনীতিতে আসি তখন কিভাবে পরিবেশ ট্যাকেল দিতে হয়, সংকট মোকাবেলা করতে হয় তা শিখিয়েছেন। আমাদের মাথার ওপর ছাতাটি সরে গেছে, বট গাছটি আর নেই। আপনারা ওনার জন্য দোয়া করবেন।

তিনি বলেন, আজকে খেলায় যে অর্জন তার বীজবপন করেছেন ওনি, বিকেএসপি প্রতিষ্ঠা করে। আমি সরকারকে ধন্যবাদ জানাই ওনার বীজটাকে লালনের জন্য। আওয়ামী লীগ গ্রামকে শহর করার কথা বলছে, এর গোড়াপত্তন করেছেন ওনি উপজেলা প্রতিষ্ঠা করে।

জাপার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন, একটি মানুষের অবদান অর্জন বুঝা যায় তার মৃত্যূর পর জানাজায় লোক সমাগম দেখে। ওনার চারটি জানাজা হয়েছে কোনটিতে তিলধরনের জায়গা ছিল না। একটির চেয়ে আরেকটি সমাগম বেশি হয়েছে। এতে বুঝা যায় ওনার নীতিকর্ম মানুষ গ্রহণ করেছিলেন।

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে জিএম কাদের বলেন, আমার ভাই যখন হাসপাতালে তখন প্রতি ঘণ্টার খোঁজ-খবর নিয়েছেন। সম্মিলিত সমারিক হাসপাতালের চিকিৎসকরা রাতদিন কাজ করেছেন। ওনারা নিজের বাবার মতো করে সেবা করেছেন।

কুলখানিতে অন্যদের মধ্যে অংশ নেন আওয়ামী লীগ নেতা তোফায়েল আহমেদ, মোহাম্মদ নাসিম, সালমান এফ রহমান, নুরে আলম সিদ্দিকী, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ। প্রয়াত এরশাদের দুই পুত্র এরিক এরশাদ, সা’দ এরশাদ।

এছাড়াস জাপা নেতাদের মধ্যে ছিলেন ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, মসিউর রহমান রাঙ্গা, কাজী ফিরোজ রশিদ, অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন খান, আবু হোসেন বাবলা প্রমুখ।