এক শিশুকে ধর্ষণ করল দুই শিশু

পঞ্চগড় সংবাদদাতা : পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলায় পাঁচ বছরের এক শিশু গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় মিলন (১২) নামে এক শিশুকে আটক করেছে পুলিশ।

রোববার সন্ধ্যায় দেবীগঞ্জ উপজেলার পামুলী ইউনিয়নের হাকিমপুর-জেন্দাপাড়া এলাকায় এ গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে। সোমবার সকালে ধর্ষণের শিকার শিশুটিকে দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত আরেক শিশু আকাশ (৯) পলাতক রয়েছে।

নির্যাতিত শিশুটির মা ও পরিবারের সদস্যরা জানান, রোববার সন্ধ্যায় শিশুটিকে বাড়িতে একা রেখে তার মা বাড়ির বাইরে ছিলেন। বাড়িতে একা পেয়ে প্রতিবেশী মিলন ও আকাশ ঘরে ঢুকে মুখ চেপে শিশুটিকে ধর্ষণ করে। বাড়ি ফিরে তার মা শিশুটিকে ঘরের মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখেন।

এ সময় প্রতিবেশী মিলন ও আকাশ তার সঙ্গে খারাপ কিছু করেছে বলে শিশুটি তার মাকে জানায়। রাতেই শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়ে। সোমবার সকালে তাকে দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আবু সায়েম বলেন, শিশুটিকে ভর্তির সময় পরিবারের পক্ষ থেকে ধর্ষণের কথা জানানো হয়। তাদের বর্ণনা অনুযায়ী শিশুকে চিকিৎসা দিচ্ছি। শিশুটির ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে দেবীগঞ্জ থানা পুলিশের ওসি রবিউল হাসান সরকার বলেন, নির্যাতিত শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মিলন নামে এক শিশুকে আটক করা হয়েছে। অভিযুক্ত আরেকজনকে আটকের চেষ্টা চলছে।