এই শীতে ঠোঁট ফাটলে কী করবেন?

লাইফস্টাইল ডেস্ক : দেখতে দেখতে চলে আসছে। শীত অনেকেরই পছন্দের ঋতু হলেও শীতে বিড়ম্বনাও কম পোহাতে হয়না। শীতের বিড়ম্বনার মধ্যে অন্যতম হল ঠোঁট ফাটা। ঠোঁট পূর্ণ শীতে যতটা না ফাটে তার চেয়ে বেশি ফাটে শীতের শুরুতে আর শেষে। শরৎ থেকেই তাই নিতে হবে ঠোঁটের যত্ন।

১. ঠোঁটের যত্নে গোলাপের পাপড়ি দারুণ কাজ করে। গোলাপের পাপড়ি ঠোঁটে ব্যব্হার করতে প্রথমে আধা কাপ দুধে ৫/৬টি গোলাপের পাপড়ি সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। পরদিন পাপড়ি বেটে সামান্য দুধ মিশিয়ে ঠোঁটে লাগান। ১৫ থেকে ২০ মিনিট অপেক্ষা করে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

২. লেবু ও মধুও ঠোঁটের যত্নে দারুণ কাজ করে। ১ টেবিল চামচ মধুর সঙ্গে আধা চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে ঠোঁটে লাগান। পরিষ্কার ঠোঁটে মিশ্রণটি লাগিয়ে রাখুন ২০ মিনিট। কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে লিপবাম লাগান।

৩. ঠোঁট ফাটা বন্ধ করতে গ্লিসারিসেন তুলনা হয়না। একটি লেবুর রসের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা গ্লিসারিন মিশিয়ে মুখবন্ধ বয়ামে রেখে দিন। চাইলে ফ্রিজে রাখতে পারেন। ঠোঁট শুষ্ক হয়ে গেলে ভ্যাসলিনের মতো ব্যবহার করতে পারেন মিশ্রণটি। ঠোঁট নরম ও কোমল হবে। ১ সপ্তাহ পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যাবে লেবু ও গ্লিসারিনের এই মিশ্রণ।

৪. ঠোঁটের যত্নে লেবু ও মধুর ব্যব্হার আগেই জেনেছেন। লেবু ও মধুর সাথে যোগ করতে পারেন কফিও, সঙ্গে অবশ্য একটু চিনিও লাগবে। আধা চা চামচ কফি পাউডারের সঙ্গে আধা চা চামচ মধু, ১ চা চামচ চিনি ও অর্ধেকটি লেবুর রস মেশান। মিশ্রণটি ঠোঁটে ঘষুন ৫ মিনিট। ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। প্যাকটি মরা চামড়া দূর করার পাশাপাশি নরম ও মসৃণ করবে ঠোঁট।