এআইবিএস ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথ সুপারিশমালা

আমেরিকান ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশ স্টাডিজ (এআইবিএস) ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথ উদ্যোগে ‘উচ্চশিক্ষায় কৌশলগত ব্যবস্থাপনা ও কার্যকর নেতৃত্ব’ শীর্ষক দুই দিনব্যাপী জাতীয় সম্মেলনের সুপারিশমালা উপস্থাপন করা হয়েছে।

বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে আনুষ্ঠানিকভাবে এ সুপারিশমালা উপস্থাপন করা হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক প্রশাসনিক ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব সুপারিশ উপস্থাপন করেন। এ সময় এআইবিএস’এর প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. গোলাম এম মাতবর উপস্থিত ছিলেন।

গত আগস্ট মাসে নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে ‘উচ্চশিক্ষায় কৌশলগত ব্যবস্থাপনা ও কার্যকর নেতৃত্ব’ শীর্ষক দুই দিনব্যাপী জাতীয় এ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়।

সুপারিশমালায় উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

এছাড়া এসব প্রতিষ্ঠানে অবকাঠামোগত উন্নয়ন, শিক্ষকদের গবেষণা ও শিক্ষাদান পদ্ধতি শীর্ষক প্রশিক্ষণ প্রদান, গবেষণালব্ধ জ্ঞানের নিয়মিত প্রকাশনা, মানসম্মত শিক্ষক নিয়োগ, শিক্ষকদের বেতন ও আনুষঙ্গিক সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি, আন্তর্জাতিক স্কলারদের সঙ্গে শিক্ষকদের ফলপ্রসূ যোগাযোগ রক্ষা এবং বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনকে আরো শক্তিশালী করার প্রস্তাব করা হয়।

এক প্রশ্নের জবাবে উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, “ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা ইতোমধ্যেই নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে এক্ষেত্রে আরো উন্নতি করার সুযোগ রয়েছে।”

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, “বিশ্বমানের গ্র্যাজুয়েট হিসাবে গড়ে ওঠতে হবে। আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলেও মেধার স্বাক্ষর রাখতে হবে।” বহির্বিশ্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় তথা বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালনের জন্য তিনি গ্র্যাজুয়েটদের প্রতি আহ্বান জানান।