উচ্চাশা নিয়েই রোববার ওমান যাচ্ছে ফুটবল দল

বিশেষ সংবাদদাতা : সর্বশেষ পাঁচটি আন্তর্জাতিক ম্যাচে দুটি জয়, একটি ড্র ও দুটি হার। জামাল ভূঁইয়াদের মাঠের পারফরম্যান্স এখন বেশ আলোচনায়। ফিফা র‍্যাংকিংয়েও উন্নতি। এর মধ্যে বাংলাদেশের ফুটবল বেশি আলোচনায় এসেছে ১০ অক্টোবর ঢাকায় কাতারের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত লড়াই করে ২-০ গোলে হারের পর ও ১৫ অক্টোবর কলকাতায় ভারতের বিরুদ্ধে জিততে জিততে ড্রয়ে।

লাল-সবুজ জার্সিধারীরা এখন ভয়ডরহীন ফুটবলের বিজ্ঞাপন। বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে তিনটি ম্যাচ খেলে সংগ্রহ মাত্র ১ পয়েন্ট, অবস্থান পাঁচ দেশের মধ্যে সবার নিচে। কিন্তু অবস্থান যেখানেই হোক, সুন্দর ফুটবল খেলেই এখন দেশের মানুষকে নতুন স্বপ্ন দেখাচ্ছেন ফুটবলাররা।

মানুষের আশার পরিধি যেমন বাড়ছে, তেমন বাড়ছে ফুটবলারদের আত্মবিশ্বাস ও প্রত্যাশা। তাইতো বাছাইয়ের চতুর্থ ম্যাচ খেলতে যাওয়ার আগে উচ্চাশার কথাই শুনিয়েছেন জাতীয় দলের প্রধান গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানা। রোববার রাত পৌনে ১০ টায় ২৩ ফুটবলার নিয়ে ম্যানেজার সত্যজিৎ দাশ রুপু উড়াল দিচ্ছেন ওমানের পথে। ১৪ নভেম্বর মধ্যপ্রাচ্যের দেশটির বিরুদ্ধে ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ।

সর্বশেষ ভারতের বিরুদ্ধে যে স্কোয়াড ছিল, সেখান থেকে মাত্র একটি পরিবর্তন করে আজ (শনিবার) ওমানগামী দলের নাম ষোষণা করেছেন ম্যানেজার। আক্রমণভাগে জুয়েল রানার পরিবর্তে নেয়া হয়েছে রাকিব হোসেনকে। কোচ জেমি ডে ছুটি কাটাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রে। সেখান থেকে ওমান গিয়ে সরাসরি দলের সঙ্গে যোগ দেবেন তিনি। ওমানে ফুটবল দল ৯ দিন কন্ডিশনিং ক্যাম্প করবে ম্যাচের আগে।

অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ শেষে স্পেন গিয়েছেন লা লিগার ধারাভাষ্য দিতে। সেখান থেকে তিনি ওমানে সরাসরি যোগ দেবেন জাতীয় দলের সঙ্গে।

দল ঘোষণার সময় ম্যানেজারের সঙ্গে ছিলেন সিনিয়র খেলোয়াড় ও গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানা। ওমানের বিরুদ্ধে ম্যাচ প্রসঙ্গে গোলরক্ষক রানা বলেছেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে আমরা কিছু ভালো ম্যাচ খেলেছি। তাই প্রত্যাশা আমাদের অনেক বেশি। আমাদের দলের ফিটনেস লেভেল আগের চেয়ে অনেক ভালো। আমাদের আত্মবিশ্বাস বেড়েছে। আমরা জয়ের লক্ষ্য নিয়েই ওমান যাচ্ছি।

জাতীয় ফুটবল দল
গোলরক্ষক : আশরাফুল ইসলাম রানা, শহিদুল আলম সোহেল ও আনিসুর রহমান জিকু।
ডিফেন্ডার: বিশ্বনাথ ঘোষ, রায়হান হাসান, টুটুল হোসেন বাদশা, রহমত মিয়া, ইয়াসিন খান, রিয়াদুল হাসান ও ইয়াসিন আরাফাত।
মিডফিল্ডার: জামাল ভূঁইয়া, মামুনুল ইসলাম, সোহেল রানা, রবিউল হাসান, বিপলু আহমেদ, আরিফুর রহমান ও মোহাম্মদ ইব্রাহিম।
ফরোয়ার্ড : নাবিব নেওয়াজ জীবন, মাহবুবুর রহমান সুফিল, মতিন মিয়া, সাদ উদ্দিন, তৌহিদুল আলম সবুজ ও রাকিব হোসেন।