ঈদ-ই মিলাদুন্নবি উপলক্ষে খুলনা সরকারি মহিলা কলেজে আলোচন সভা ও দোয়া মাহফিল

সাওদা ইসলামঃ পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবি ২০১৭ উপলক্ষে বুধবার সকাল ১১টা থেকে ২টা পর্যন্ত খুলনা সরকারি মহিলা কলেজের অডিটরিয়াম ভবনে আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণি ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেন কলেজ কর্তৃপক্ষ। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন কলেজের সম্মানিত অধ্যক্ষ মোসাঃ রওশন আকতার। আয়োজক ও আহবায়ক হিসেবে ছিলেন অর্থনীতি বিভাগের সহযোগি  অধ্যাপক মমিন উদ্দীন, অনুষ্ঠানটি পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক তরফদার আব্দুল আলীম, এছাড়া অনুষ্ঠানটি সুষ্টুভাবে সম্পাদন করতে খুলনা সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষক পরিষদ ও ছাত্রী সংসদের শিক্ষকগণ এবং অন্যান্য সকল শিক্ষক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে সকাল ১১টায় অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। এরপর কলেজের বিভিন্ন শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা সুমধুর স্বরে হামদ, নাথ, গজল পরিবেশন করে।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন কলেজের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক মোঃ মনিরুজ্জামান শেখ, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক জোয়ার্দার শরীফুল ইসলাম, ছাত্রী সংসদের ভারপ্রাপ্ত অধ্যাপক ও ইংরেজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক আবুল কাশেম, বাংলা বিভাগের প্রধান অধ্যাপক জাকিরুল ইসলাম, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক ডঃ মোঃ শামসুজ্জামান, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের প্রধান অধ্যাপক এস. এম. মাহমুদ, অর্থনীতি বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক মমিন উদ্দীন এবং কলেজের অধ্যক্ষ মোসাঃ রওশন আকতার। তারা সকলে ইসলামের দূত হযরত মুহম্মদ সঃ এর জন্মদিন উপলক্ষে পৃথিবীতে তাঁর আগমনিপূর্ব অবস্থা, তাঁর সময়কালীন ইসলাম প্রতিষ্ঠা ও বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় তাঁর ভূমিকা এবং তাঁর পরবর্তী যুগের মানুষের অবস্থা সম্পর্কে আলোচন করেন। আলোচনায় উঠে আসে তাঁর বিদায় হজ্জ্বের ভাষণ, তাঁর উদারতা মহানুভবতা এবং মক্কা থেকে মদীনা গমনের ইতিহাস, আইয়ামে জাহেলিয়ার যুগে অর্থাৎ অন্ধকার যুগে এসে তিনি কিভাবে আলোকবর্তিকা হিসেবে ভূমিকা পালন করেছেন সে কথা, নারীদেরকে জীবিত কবরের হাত থেকে উদ্ধার করে কিভাবে পরম সম্মানের স্থানে আসীন করেছেন সে প্রসঙ্গ, তিনি আযানের প্রবর্তন করে কিভাবে সারা পৃথিবিকে ২৪ঘন্টা ৫ওয়াক্ত আযানের সুমধুর আহবানে আলোড়িত করেছেন সে কথা। এছাড়াও নারী জাতি হিসেবে নবীজীর দেখানো পথে নারীরা কিভাবে চলবে, তাদের আচার ব্যবহার, পরিবার ও স্বামীর প্রতি দায়িত্ব কর্তব্য আচরণ কেমন হওয়া উচিৎ সে প্রসঙ্গেও বিস্তৃত আলোচনা করা হয়। বর্তমান যুগে মানুষ বিশেষ করে ছাত্র ছাত্রীরা কিভাবে অস্ত্র তুলে নিয়ে বিশ্বের দরবারে ইসলামকে সন্ত্রাসধর্ম হিসেবে অপপ্রচার করছে; অথচ ইসলামের ভাষা কখনই অস্ত্র নয়, ইসলামের ভাষা হচ্ছে শান্তির ভাষা- এ বিষয় সম্পর্কেও আলোচনা করা হয় এবং পরিশেষে সবাইকে অস্ত্র ছেড়ে শুধু ধর্মীয় জ্ঞান বা সাধারন জ্ঞান নয় বরং দুইটি বিষয়েই সঠিক ও সত্য জ্ঞান অর্জন করে পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে ইসলামের ছায়াতলে এসে সুস্থ, সুন্দর ও দ্বীনি জীবনযাপন করতে আহবান করে আলচনা সভার সমাপ্তি হয়।

এরপর শুরু হয় ঈদ-ই-মিলাদুন্নবি উপলক্ষে গত ১৫/০১/২০১৮ তারিখে কলেজে অনুষ্ঠেয় ৫টি বিষয়ের প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। এ প্রতিযোগীতায় কুরআন তেলাওয়াতে ১ম স্থান অধিকার করে হাসনাতুজ্জাহান(সম্মান ৩য় বর্ষ), ২য়- রূম্পা মণি, ৩য়- আবিদা সুলতানা; হামদ-ই-রাসূল প্রতিযোগীতায় ১ম- তৃষা আকতার, ২য়- মোসাঃ রূপালি খাতুন, ৩য়- মারুফা ইয়াসমিন আনিকা; নাথ-ই-রাসূলে ১ম- তৃষা আকতার, ২য়- ফাতিমা আকতার, ৩য়- হাসনাতুজ্জামান; রচনা প্রতিযোগিতায় ১ম- হাবিবা ইসলাম মৌ, ২য়- মাহফুজা আকতার রুলিয়া, ৩য়- মেহেরুন্নেসা মুনি; কুইজে ১ম- রূপালি খাতুন, ২য়- নুসরাত জাহান, ৩য়(যৌথ)- আফরোজা আফরিন, আফসানা আকতার।

পুরস্কার বিতরণী শেষে দোয়া মাহফিলে অর্থনীতি বিভাগের প্রভাষক সাইমুম আমিন চৌধুরী কিতাব পাঠ করে এবং দেশ ও জাতির কল্যাণের উদ্দেশ্যে দোয়া কামনা করে মোনাজাতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন। অনুষ্ঠান শেষে শিক্ষার্থীদের মাঝে সুষ্ঠু ও সুশৃঙ্খলভাবে তাবারক বিতরণ করা হয়।

Inline
Inline