ঈদযাত্রায় শেষ দিনের সড়কে ঝরলো ৯ প্রাণ

সারাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় ঘরমুখো ৯ জন মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। এরমধ্যে গোপালগঞ্জে ছয় জন ও নওগাঁয় তিন জন নিহত হন। এছাড়া হবিগঞ্জে ২৫ ও মুন্সীগঞ্জে ১১ জন আহত হন।

গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ঈদে ঘরমুখো ছয় জন নিহত হয়েছেন। এরমধ্যে মুকসুদপুরে চার জন ও ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জের গোপিনাথপুর শরীফপাড়ায় দুই জন নিহত হন।

মুকসুদপুরের ছাগলছিড়ার দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন- গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলার বর্নি গ্রামের কামরুজ্জামানের স্ত্রী রোজিনা বেগম(২৫), মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলার ওমরখালী গ্রামের আবু বক্কার মোল্লার স্ত্রী নাহিদা ইসলাম নুপুর, ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার ভিপির কান্দি গ্রামের রউফ মোল্লার ছেলে আব্দুর বর মোল্লা(৬৫) ও মাদারীপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকার নুরুল ইসলামের স্ত্রী সুর্বণা বেগম(৩৭)।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ঢাকা-বরিশাল সড়কের মুকসুদপুর উপজেলার ছাগলছিড়ায় যাত্রীবাহী লোকাল বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ঘটনাস্থলেই তিন জন নিহত ও ৩৫ যাত্রী আহত হন। আহতদের মধ্যে ৭ জনকে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে, ৯ জনকে রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে সুর্বনা বেগম চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। বাকি চার জনকে রাজৈর হাসপাতালে থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

একই দিন সকাল সাড়ে ৭টার দিকে দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জের গোপিনাথপুর শরীফপাড়ায় বাসের ধাক্কায় প্রাইভেটকারের দুই যাত্রী নিহত ও একজন আহত হন। নিহতরা হলেন- রুপালী ব্যাংক ঢাকার দক্ষিণ মতিঝিল শাখার সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট উপজেলার মুলঘর এলাকার আজিজুর রহমানের ছেলে এস এম আরাফাত হাসান প্রিন্স (৩৬) ও তার ফুপাতো ভাই খুলনার ময়লা পোতা এলাকার আজমী কুদরত-ই-খুদার ছেলে ইঞ্জিনিয়ার মো. শিমুল (৪০)। আহত হন নিহত প্রিন্সের স্ত্রী মেসকাতই জাহান ফেরদৌসি কেকা(৩২)।

নওগাঁ
: মহাদেবপুর উপজেলার নওহাটামোড় পুলিশ ফাঁড়ি এলাকার খোর্দ্দনারায়নপুর ব্রিজ এলাকায় ট্রাকের চাপায় ঘটনাস্থলেই তিন জন নিহত হয়েছেন। তারা সবাই মোটরসাইকেল আরোহী ছিলেন। মঙ্গলবার (২১ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটের দিকে দুর্ঘটনাটি ঘটে।

নিহতরা হলেন- নওগাঁর পোরশা উপজেলার ঘাটনগর গ্রামের মোশারফ হোসেন এর ছেলে সুমন (৩৭), তার স্ত্রী ইভা (২৬) ও ইভার মা রাজশাহীর বোয়ালিয়া থানার বালিয়া পুকুর গ্রামের ইউছুপ আলীর স্ত্রী রুবিনা পারভীন পারুল (৪৭)।

নওহাটামোড় পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ এসআই মামুনুর রশিদ বলেন, ‘নওগাঁ থেকে রাজশাহীমুখী একটি মোটরসাইকেলকে পেছন দিক থেকে একটি ট্রাক চাপা দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তিন জন মারা যান।’

মুন্সীগঞ্জ: ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলায় গ্রেট বিক্রমপুর ও স্বাধীন পরিবহনের যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১১ জন আহত হন। মঙ্গলবার (২১ আগস্ট) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কেয়টখীরা এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। শ্রীনগর ও লৌহজং সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজী মাকসুদা লিমা দুর্ঘটনার খবর নিশ্চিত করেন।

আহতরা হলো, শরিয়তপুর জেলার মুক্তা বেগম (৪০) ও তার মেয়ে মোছা. তুবা (১০), শ্রীনগর উপজেলার উত্তর সেলামতি গ্রামের জাহিরা বেগম (৫৫) ও তার নাতনি মো. রুমিক (৭), গোপালগঞ্জ জেলার মারুফ মিয়া (২৪),লৌহজং উপজেলার জাকির হোসেন (৩০), ফরিদপুর জেলার ফরিদপুর জেলার মহিউদ্দিন (৫০), ফরিদপুর জেলার ইমরান (২৫), শরিয়তপুর জেলার শামিম (৩০),ফরিদপুর জেলার মিলন মোল্লা (৩০), শিবচরের শাহনাজ বেগম (৩০)।

শ্রীনগর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা মো. আরিফুজ্জামান জানান, ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার আহতদের শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জে বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে ২৫ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে গুরুতর আহত অবস্থায় ১৫ জনকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়াও আশঙ্কাজনক অবস্থায় তিন জনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার (২১ আগস্ট) সকালের দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের অলিপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা হবিগঞ্জগামী একটি বাস অলিপুর এলাকায় আসার পর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে খাদে পড়ে যায়। এসময় বাসটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। খবর পেয়ে শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানা পুলিশ ও হবিগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে আসে।

আহতদের মধ্যে, আলাল মিয়া, রুমান মিয়া, রায়হান মিয়া, মাসুম মিয়া, সাগর আহমেদ, আনিছ মিয়া, জুয়েল মিয়া, ছায়েদ আলী, মোবারক মিয়া, ইয়াকুব আলী, আলামিন মিয়া, সরজুল মিয়া, জুই আক্তার ও ফাহিম মিয়াকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসিম উদ্দিন জানান, অলিপুরে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে খাদে পড়ে যায়। খবর পেয়ে হাইওয়ে থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে আসে।

হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. রাজীব চৌধুরী জানান, আহতদের মধ্যে তিন জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদেরকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও অন্যান্যদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।