ইবির ৫ বিভাগের ক্লাস বর্জন

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক : ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রির দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস বর্জন করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচটি বিভাগের দুই শতাধিক শিক্ষার্থী।

রোববার বেলা ১১টা থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের পাঁচটি বিভাগের শিক্ষার্থীরা অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস বর্জনের ঘোষণা দিয়ে পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম ওয়াজেদ মিয়া বিজ্ঞান ভবনের সামনে অবস্থান নেয়।

এ সময় আন্দোলনকারীরা দাবি আদায়ে আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত প্রশাসনকে সময় বেঁধে দেয়। এ সময়ের মধ্যে দাবি আদায় না হলে কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা দেয়ার কথা জানায় তারা।

গত বছর ১২ নভেম্বর ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং, ফলিত রসায়ন ও ক্যামিকৌশল ইঞ্জিনিয়ারিং এবং বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সমন্বয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদ গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বিভাগগুলোতে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষ থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি প্রদান করবে বলে জানায় কর্তৃপক্ষ। ফলে আগের ব্যাচের শিক্ষার্থীরা ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি থেকে বঞ্চিত হওয়ায় চাকরির বাজারে নানাবিধ সমস্যার মুখোমুখি হওয়ায় আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা।

এর আগে এই ডিগ্রি থেকে বঞ্চিত শিক্ষার্থীরা সমস্যাগুলোর প্রমাণাদিসহ কর্তৃপক্ষের কাছে স্মারকলিপি দেয়। তখন অনুষদের ডিন ও বিভাগের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি প্রদানের আশ্বাস দেয়। কিন্তু আজো তাদের দাবি বাস্তবায়ন না হওয়ায় অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

সিএসই বিভাগের তামান্না ও আইসিই বিভাগে ফজলুর রহমান বলেন, ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি আমাদের অধিকার। এ অধিকার বঞ্চিত হলে চাকরির বাজার থেকে আমরা ছিটকে পড়ব। তাই দাবি আদায়ে আন্দোলনে নেমেছি।

এ বিষয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন অধ্যাপক মমতাজুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। শিক্ষার্থীরা আমাকে কিছু জানায়নি।