ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্প পরবর্তী সুনামিতে নিহত ৪৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্প পরবর্তী সুনামিতে এখন পর্যন্ত ৪৮ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন আরও অন্তত চার শতাধিক। দ্বীপ দেশটির সুলাওয়েসি দ্বীপের পালু শহরে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

শুক্রবার ইন্দোনেশীয় কর্তৃপক্ষ সুলাওয়েসি দ্বীপে সতর্কতা তুলে নেয়ার কিছুক্ষণ পর ৬ ফুট উঁচু ঢেউ নিয়ে সুনামি আঘাত হানে। শক্তিশালী ৭.৫ মাত্রার ভূমিকম্পের পরেই আছড়ে পড়ে সুনামি।

ইন্দোনেশিয়ার জাতীয় দুর্যোগ নিরসন সংস্থার মুখপাত্র সূতোপো পুরো নুগরোও শনিবার সংবাদ সম্মেলনে এই হতাহতের তথ্খয দিয়েছে বলে জানিয়েছে চাইনা গ্লোবাল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক।

শুক্রবার প্রথমে ইন্দোনেশিয়া কেঁপে ওঠে তীব্র ভূমিকম্পে। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৭.৫। ভূমিকম্পের উৎসস্থল (এপিসেন্টার) ছিল যেখানে, তার থেকে ৮০ কিলোমিটার দূরে পালু শহরে আছড়ে পড়ে সুনামি। পালু শহরে বসবাস করেন সাড়ে তিন লাখের বেশি মানুষ।

মার্কিন জিওলজিক্যাল সার্ভে প্রথমে জানিয়েছিল, কম্পনের মাত্রা ৭.৭। তবে পরে জানানো হয়, রিখটার স্কেলে ৭.৫ তীব্রতার কম্পন ধরা পড়েছে।

ভূমিকম্পপ্রবণ দেশগুলির মধ্যে প্রথম সারিতেই রয়েছে ইন্দোনেশিয়া। মাঝেমধ্যেই কেঁপে উঠে এই দ্বীপ রাষ্ট্র। ২০০৪ সালে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বড় ভূমিকম্প এবং তার জেরে সুনামি আছড়ে পড়ে অন্তত ১৩টি দেশে। সব দেশ মিলিয়ে দুই লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়। শুধু ইন্দোনেশিয়াতেই মৃতের সংখ্যা ছিল এক লাখ ২০ হাজার।

Inline
Inline