ইনিংস ঘোষণা অস্ট্রেলিয়ার, বিপদে শ্রীলঙ্কা

ক্রীড়া ডেস্ক : ভারতের সঙ্গে মোটেও পেরে ওঠেনি যারা, তারাই কি না শ্রীলঙ্কাকে তেড়ে-ফুঁড়ে জ্বলে উঠেছে ব্যাট হাতে। প্রথম টেস্টে তো ইনিংস ব্যবধানেই জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া। ক্যানবেরায় দ্বিতীয় টেস্টেও লঙ্কানদের ওপর রীতিমত ছড়ি ঘোরাচ্ছে অসিরা। টেস্টের প্রথম দিনটা অনায়াসেই কাটিয়ে দিয়েছিল তারা। দুর্দান্ত সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছিলেন ওপেনার জো বার্নস এবং ট্রাভিস হেড।

ট্রাভিস হেড ১৬১ রান করে আউট হয়ে গিয়েছিলেন প্রথম দিনিই। তবে দ্বিতীয় দিন জো বার্নস ১৭২ রান নিয়ে ব্যাট করতে নেমেছিলেন ডাবল সেঞ্চুরির আশায়। তবে দ্বিতীয় দিনের শুরুতে নিজের ইনিংসের সঙ্গে মাত্র ৮ রান যোগ করে বিদায় নিতে হয়েছিল বার্নসকে। তিনি আউট হয়ে গেলেও অস্ট্রেলিয়ার ইনিংসকে আরও অনেক দুর টেনে নেয়ার মত ব্যাটসম্যান ছিল।

আগেরদিন ২৫ রানে অপরাজিত থাকা, এই সিরিজেই অভিষেক হওয়া কুর্তিস প্যাটারসন তুলে নেন ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। শেষ পর্যন্ত ১১৪ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। প্যাটারসনকে সেঞ্চুরিতে দারুণ সঙ্গ দেন অধিনায়ক টিম পেইন। শেষ পর্যন্ত তিনি অপরাজিত ছিলেন ৪৫ রানে।

দ্বিতীয় লাঞ্চ বিরতির পর আরও কিছুক্ষণ খেলে, অর্থ্যাৎ আরও ৪৫ ওভার খেলে (মোট ১৩২ ওভার) ৫ উইকেটে ৫৩৪ রানের চূড়ায় ওঠার পর ইনিংস ঘোষণা করে অস্ট্রেলিয়া। শ্রীলঙ্কার হয়ে বিশ্ব ফার্নান্দো ১২৬ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। ১টি করে উইকেট নেন কাসুন রাজিথা এবং চামিকা করুনারত্নে।

৫৩৪ রানের বিশাল রানের নিচে চাপা পড়ে প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে মোটামুটি বিপদেই আছে সফরকারী শ্রীলঙ্কা। দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে তারা ৩ উইকেটে ১২৩ রান নিয়ে। দিন শেষে ১১ রান নিয়ে ব্যাট করছেন কুশল পেরেরা এবং ১ রান নিয়ে রয়েছেন ধনঞ্জয়া ডি সিলভা। এখনও ৪১১ রান পিছিয়ে রয়েছে শ্রীলঙ্কা।

৩ উইকেটে ১২৩ রান- এই স্কোরে লঙ্কানদের বিপদে বলা যেতো না। যদি না, দিমুথ করুনারত্নে ইনজুরিতে না পড়তেন। ৮৫ বলে ৪৬ রান করে আহত হয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে লঙ্কান এই ওপেনারকে। শেষ পর্যন্ত তিনি যদি আর ব্যাট করতে না নামতে পারেন, তাহলে তো ৩ উইকেটের পরিবর্তে লঙ্কানদের ৪ উইকেট বলাটাই শ্রেয়।

লাহিরু থিরিমানে ভালোই ব্যাট করছিলেন। কিন্তু নাথান লিওনের ঘূর্ণি ফাঁদে পা দিয়ে উসমান খাজার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান তিনি। তার আগে করেছেন ১০৫ বলে ৪১ রান। অধিনায়ক দিনেশ চান্দিমাল পুরোপুরি অফ ফর্মে। তিনি আউট হন ১৫ রান করে। কুশল মেন্ডিসকে মাত্র ৬ রানের মাথায় বোল্ড করেন প্যাট কামিন্স।