ইঁদুরের বিরুদ্ধে ৫৫০ কেজি গাঁজা খাওয়ার অভিযোগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আর্জেন্টিনার বুয়েনস এইরেসে শহরের কাছে পুলিশের একটি সংরক্ষণাগারে বিভিন্ন সময় জব্দ করা ছয় হাজার কেজির মতো গাঁজা রাখা ছিল।

গত দুই বছর ধরে সেগুলো বিভিন্ন অভিযানে জব্দ করা হয়েছে। এমিলিও পরতেরো শহরের নতুন পুলিশ কমিশনারের দায়িত্ব নিয়েছেন।

সব কিছুর খোঁজ খবর নিতে গিয়ে আবিষ্কার করলেন বিশাল পরিমাণে গাঁজার কোন হদিস নেই। স্বভাবতই তার পূর্ববর্তী কমিশনার হাভিয়ের স্পেশিয়ার দিকেই তাক করা হলো সন্দেহের তীর।

কারণ তিনি তার পদ ছেড়ে যাওয়ার সময় সংরক্ষণাগারে কি সামগ্রী জমা আছে সে বিষয়ে কাগজপত্রে কোন সাক্ষর করেননি। তদন্তের সময় স্পেশিয়া জানালেন যে ঐ গাঁজা নাকি ইঁদুরে খেয়েছে।

ইঁদুর সম্ভবত গাঁজাকে খাবার ভেবে ভুল করেছিল, এমনটাই ছিল তার যুক্তি।

কিন্তু ইঁদুর কি গাঁজা খায়? তাও আবার সাড়ে পাঁচশো কেজি? অর্থাৎ আধা টনের মতো। অতএব বিষয়টি নিয়ে গবেষণা ও তদন্ত শুরু হলো।

বুয়েনস এইরেস বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞরা জানালেন, ইঁদুর গাঁজাকে খাবার হিসেবে ভুল করবে সেটা সম্ভব নয়।

আর যদি ভুল হয়েও থাকে সেক্ষেত্রে ইঁদুরগুলোর শরীরে রাসায়নিক প্রতিক্রিয়া হতো আর তাতে তারা নির্ঘাত মারা পড়তো।

এখন ইঁদুরের ঘাড়ে দোষ চাপানোর দায়ে বুয়েনস এইরেসে শহরে আটজন পুলিশ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

মে মাসের শুরুতে তাদের আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে বিচারকের সামনে সাক্ষ্য দিতে হবে।

চাকরি তো গেছেই, এখন গাঁজা খাওয়ার দায়ে ইঁদুরকে দোষী সাব্যস্ত করতে না পারলে জেলেও জেতে হতে পারে তাদের।

সূত্র: বিবিসি

Inline
Inline