আরব বিশ্বের সবচেয়ে বড় মসজিদ ও গির্জা উদ্বোধন

ধর্ম ডেস্ক : পিরামিডের দেশ মিসর। প্রত্নতাত্তিক স্থাপত্য ও স্থাপনা সংরক্ষণে মিসরের ইতিহাস ও ঐতিহ্য অনেক প্রাচীন। এবার মিসরের নতুন প্রশাসনিক রাজধানীতে ইসলামি স্থাপত্য শৈলীতে নির্মাণ করা হয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের সবচেয়ে বড় মসজিদ ও গির্জা। ধর্মীয় সহনশীলতা ও শান্তি বৃদ্ধিতে এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে মিসর।

মধ্যপ্রাচ্যে নবনির্মিত সবচেয়ে বড় মসজিদ ও গির্জা আনুষ্ঠানিকভাবে গতকাল (৬ জানুয়ারি) উদ্বোধন করা হয়েছে। মিসরের প্রেসিডেন্ট আবুল ফাতাহ আল-সিসি মসজিদ ও গির্জার উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস, আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যান্ড ইমাম আহমদ তাইয়েব ও মিসরের অর্থোডক্স ক্যাপ্টিক পোপ তাভাযারুস (দ্বিতীয় পোপ)।

মিসরের নির্মিত ধর্মীয় স্থাপনা দু’টি হলো ‘আল-ফাতাহ আল-আলিম মসজিদ ও ক্যাথিড্রাল মিলাদ মাসিহ।

আল-ফাতাহ আল-আলিম মসজিদটি আরব বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বড়। ৩ হাজার নারীসহ একসঙ্গে প্রায় ২০ হাজার মানুষ নামাজ পড়তে পাড়বে। মসজিদটিতে রয়েছে ৯০ মিটার উচ্চার ৪টি মিনার। একটি প্রধান গম্বুজসহ মোট ৪টি ছোট গম্বুজও রয়েছে। কারুকার্য ও উন্নত ব্যবস্থাপনায় মসজিদের ভেতরের অংশ সজ্জিত।

মসজিদের সঙ্গে কুরআন হেফজের ব্যবস্থার পাশাপাশি নির্মাণ করা হয়েছে চিকিৎসা সেবা প্রদানে ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল।

খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের জন্য মধ্যপ্রাচ্যের বৃহত্তম গির্জারও উদ্বোধন করা হয়েছে। আরব বিশ্বের সবচেয়ে বড় গির্জা এটি। ৬৩ হাজার বর্গ মিটার জমির ওপর গির্জাটি নির্মাণ করা হয়েছে। গির্জার চিহ্ন সম্বলিত টাওয়ারটি উচ্চতা ৬০মিটার।

মিসরে মধ্যপ্রাচ্যের সবচেয়ে বড় গির্জায় নির্মাণ এবং উদ্বোধন করায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মিসররে জনগণকে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন।