আমির-আফ্রিদির হাতেই অলআউট দক্ষিণ আফ্রিকা

ক্রীড়া ডেস্ক : সেঞ্চুরিয়ন টেস্টের প্রথম দিনেই পড়েছিল ১৫ উইকেট। পেসারদের তোপের মুখে একের পর এক উইকেট পড়েছে শুধু। প্রথমে অলআউট হয়েছিল পাকিস্তান, ১৮১ রানে। পরে ১১২ রানেই দক্ষিণ আফ্রিকার পড়েছিল ৫ উইকেট। প্রথম দিন শেষে স্বাগতিক প্রোটিয়াদের রান ছিল ৫ উইকেট হারিয়ে ১২৭।

দ্বিতীয় দিনের শুরুতে টেম্বা বাভুমা আর শেষ দিকে কুইন্টন ডি কক কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে দাঁড়ালে দক্ষিণ আফ্রিকার রান শেষ পর্যন্ত ২০০ পার হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত স্বাগতিকরা অলআউট হলো ২২৩ রানে। লিড দাঁড়ালো তাদের ৪২ রানের। মোহাম্মদ আমির এবং শাহিন শাহ আফ্রিদি নেন সমান ৪টি করে উইকেট।

প্রথম দিন শেষে উইকেটে আশার প্রতীক হয়ে ছিলেন টেম্বা বাভুমা। তার সঙ্গে ছিলেন ডেল স্টেইন। দ্বিতীয় দিনের শুরুতে এ দু’জন বেশ কিছুক্ষণ সামলান পাকিস্তানি পেসারদের। কিন্তু ২৩ রান করে স্টেইন আউট হয়ে গেলে ভেঙ্গে যায় এই জুটির প্রতিরোধ।

ডেল স্টেইন আউট হয়ে গেলেও আট নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ভালোই জবাব দেন কুইন্টন ডি কক। ৫৩ বলে ৪৫ রানের দারুণ কার্যকরী একটি ইনিংস খেলেন তিনি। টেম্বা ভাবুমা হাফ সেঞ্চুরি পূরণ করে আউট হন। আউট হওয়ার সময় তার নামের পাশে লেখা ছিল ৫৩ রান। যা ছিল ইনিংসে সর্বোচ্চ। কাগিসো রাবাদা করেন ১৯ রান।

মোহাম্মদ আমির, শাহিন শাহ আফ্রিদির পেস তোপেই মূলতঃ শেষ হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। দু’জন ৮ উইকেট নেন সমান ৪টি করে। বাকি ২ উইকেট নেন আরেক পেসার হাসান আলি।