‘আমিরের নীতি’ ধরছেন কারিনা

বিনোদন ডেস্ক : কথিত আছে, বছরে একটার বেশি ছবিতে দেখা যায় না বলিউডের ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’ খ্যাত অভিনেতা আমির খানকে। যদিও ক্যারিয়ারের শুরু দিকে তিনি বছরে চার-পাঁচটা ছবিও করেছেন। কিন্তু তিন দশকের অভিনয় জীবনের অধিকাংশ বছরই তার ছবির সংখ্যা একটি। যেমন ২০০৭ সাল থেকে ২০১৮ পর্যন্ত বছরগুলোতে তাকে একটি করে ছবিতেই দেখা গেছে।

আমিরের এই ‘নীতি’ খুবই ফলপ্রদ। বছরে একটি ছবি আসলেও সেটাই হিট হয়। অভিনেতার সেই নীতিতে এবার হাটতে চলেছেন বলিউডের নবাব পরিবারের পুত্রবধূ কারিনা কাপুর খানও। সম্প্রতি এক সাংবাদিক বৈঠকে কারিনা জানিয়েছেন, এখন থেকে তিনি বছরে একটি ছবিতে অভিনয় করবেন।

তবে কারিনার এমন সিদ্ধান্তের কারণ অবশ্য ভিন্ন। এখন তিনি শুধু ফিল্মের একজন নায়িকাই নন, একজন দায়িত্বশীল মাও। সন্তান তৈমুর জন্ম নেয়ার আগে থেকেই তিনি অভিনয়ে খুব একটা সময় দিতে পারেন না। মা হওয়ার পর তো ব্যস্ততা আরো বেড়েছে। কেননা, মা কারিনার দিনের বেশিরভাগ সময়ই তো সন্তান তৈমুরের জন্য বরাদ্দ। যার কারণেই বোধহয় এমন সিদ্ধান্ত।

এদিকে, কিছুদিন পরেই মুক্তি পেতে চলেছে কারিনার ‘ভিরে দি ওয়েডিং’ ছবিটি। মা হওয়ার পর এই ছবি দিয়েই প্রথম ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান তিনি। ছবিটি প্রসঙ্গে কারিনা বলেন, ‘চার বন্ধুর গল্প নিয়ে ‘ভিরে দি ওয়েডিং নির্মিত হয়েছে। আমি সব সময় নায়কের সঙ্গে স্ক্রিন স্পেস শেয়ার করেছি। এই প্রথম অন্য তিনজন অভিনেত্রীর সঙ্গে কাজ করলাম।’

অন্যদিকে, করণ জোহারের ধর্মা প্রোডাকশনের একটি ছবিতেও সম্প্রতি চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন কারিনা। যেটিতে তার নায়ক হালের সেনসেশন সিদ্ধার্থ মালহোত্রা। ছবিটির পরিচালনায় রয়েছেন রাজ মেহতা। সবকিছু ঠিক থাকলে এই ছবির মাধ্যমে প্রথমবার জুটি বাঁধবেন কারিনা ও সিদ্ধার্থ। ছবিতে কারিনাকে দেখা যাবে একজন মায়ের চরিত্রে।