আমরণ অনশনের দ্বিতীয় দিনে ১৩ শিক্ষক অসুস্থ

এমপিওভুক্তির দাবিতে আমরণ অনশনের দ্বিতীয় দিনে ১৩ শিক্ষক অসুস্থ হয়েছেন। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নন-এমপিও শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী (ডলার) ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘আমাদের দ্বিতীয় দিনের মতো অনশন চলছে। এ পর্যন্ত তের জন শিক্ষক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাদের ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে।’

এমপিওভুক্তির দাবিতে গত ২৬ ডিসেম্বর থেকে টানা অবস্থান কর্মসূচি পালন করে শিক্ষকরা। কিন্ত এতে কোনো সাড়া না পাওয়ায় ৩১ ডিসেম্বর থেকে আমরণ অনশনে যায় তারা। অনশনের দ্বিতীয় দিনে অসুস্থ ১০ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে। আর তিন জনকে প্রেসক্লাবের সামনেই স্যালাইন দেয়া হচ্ছে।

অসুস্থ শিক্ষকরা হলেন নান্নু মিয়া, পাবনা; এবিএম বুলবুল, নড়াইল; মো ফরহাদ, কুড়িগ্রাম; বজলুর রহমান, বরিশাল; আব্দুল খালেদ, ঠাকুরগাঁও; আ রাজ্জাক, কুষ্টিয়া; মতিউর রহমান, নাটোর; মাহবুবুর রহমান, বরিশাল; ফজলুর রহমান, বরিশাল; রোমানা আক্তার, ঝালকাঠি; আকবর আলী, ঠাকুরগাঁও; গোলাম মোস্তফা, সিরাজগঞ্জ।

গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার বলেন, ‘শিক্ষকদের এটা বৈধ দাবি। যতক্ষণ পর্যন্ত আমাদের দাবি পূরণ হবে ততক্ষণ আমরা আমরণ অনশন চালিয়ে যাব। প্রয়োজনে শিক্ষকরা এই রাজপথে আত্মহুতি দেবে, তবুও এমপিও ছাড়া ফিরে যাবে না।’

ডলার বলেন, ‘এমপিওভুক্তি না করলে আমরা কি বিনা পারিশ্রমিকে পাঠদান করাবো? বেতন ছাড়া শিক্ষকরা দৈন্য দশায় রয়েছে। আমরা আশা করবো সরকার আমাদের এমপিওভুক্তি করে শিক্ষকদের মানবিক বিপর্যয় থেকে রক্ষা করবেন।’

শিক্ষক নেতৃবৃন্দ আশা প্রকাশ করেন, অচিরেই প্রধানমন্ত্রী সকল স্বীকৃতিপ্রাপ্ত নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান একসাথে এমপিওভুক্তির ঘোষণা দেবেন।