আবারও দুই বাসের প্রতিযোগিতায় রাজধানীতে শিক্ষার্থী নিহত

দুই বাসের প্রতিযোগিতায় চাপা পড়ে নিহত হয়েছেন এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থী। গতকাল রাজধানীর উত্তরা ১০ নম্বর সেক্টরের ক্যান্সার হাসপাতালের পাশের সড়কে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় বিকাশ পরিবহনের একটি বাস ওই শিক্ষার্থীকে চাপা দেয়। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

উত্তরা পশ্চিম থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. সাদেক জানান, বেলা সোয়া ৩টার দিকে বাসার সামনের রাস্তায় দাঁড়িয়ে ছিলেন তানভীর। এ সময় বিকাশ পরিবহনের দুটি যাত্রীবাহী বাস পাল্লাপাল্লি করে যাওয়ার সময় রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা তানভীরকে চাপা দেয়। পরে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


তানভীরের মামা সবুজ ফরাজীর বরাত দিয়ে এ পুলিশ কর্মকর্তা আরো জানান, কুমিল্লা থেকে গত সপ্তাহে বাবা লাল মিয়ার সঙ্গে ঢাকায় বেড়াতে আসেন তানভীর। তিনি ওখানকার একটি মাদ্রাসায় পড়াশোনা করেন।
এদিকে গতকাল বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে রাজধানীর হাজারীবাগে ব্যাটারিচালিত দুটি অটোরিকশার সংঘর্ষে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।
নিহত মনির হোসেন পেশায় স্যানিটারি মিস্ত্রি। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরো দুজন। তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পথচারীর বরাত দিয়ে হাজারীবাগ থানার ডিউটি অফিসার এসআই আসলাম জানান, হাজারীবাগ বেড়িবাঁধসংলগ্ন শেখ রাসেল স্কুলের সামনে দুটি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় মনির হোসেন রাস্তায় পড়ে গেলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি অটোরিকশা তাকে চাপা দেয়।
এদিকে, ২০১৮ সালে ২৯শে জুলাই নিরাপদ সড়কের দাবীতে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা। সড়কের অব্যবস্থাপনা দূর করতে নয় দফা দাবী উত্থাপন করেছিলেন তারা।