আত্রাইয়ে ভুট্টা মাড়াই মেশিনের কদর বেড়েই চলেছে

রুহুল আমিন, আত্রাই (নওগাঁ) সংবাদদাতা : নওগাঁর আত্রাই এলাকা জুড়ে দিন দিন ভুট্টাচাষও বাড়ছে সেই সাথে ভুট্টা মাড়াই মেশিনের কদরও বাড়ছে। মেশিন দিয়ে ভুট্টার মাড়াইয়ের ফলে একদিকে সময়ের সাশ্রয়ও অপরদিকে আর্থিক ভাবেও লাভবান হচ্ছে কৃষকরা।
এক সময় উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ভুট্টাচাষিরা ভুট্টা মাড়াই নিয়ে পড়তো চরম বিপাকে। জমি থেকে ভুট্টা কর্তনের পর স্তুপ করে চতুর্দিক দিয়ে শ্রমিক বসিয়ে উচ্চ মূল্য দিয়ে ক্যান থেকে ভুট্টা ছড়ানো হত। সেসময় এক বিঘা জমির ভুট্টা ছড়াতে ব্যয় হত ৪ থেকে ৫ হাজার টাকা। সময়ও ব্যয় হত অনেক বেশি। আবার অনেক সময় শ্রমিক সংকটের কারণে যথা সময়ে ভুট্টা ছড়াতে না পারায় অনেক ভুট্টা নষ্ট হয়ে যেত। ফলে ভুট্টা নিয়ে তাদেরকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হত।
এদিকে মেশিন দিয়ে ভুট্টা মাড়াইয়ের ফলে একদিকে সময়ের সাশ্রয় অপরদিকে আর্থিক ভাবেও লাভবান হচ্ছে কৃষকরা। ফলে আত্রাইয়ের কৃষকরা ভুট্টা চাষের প্রতি আগ্রহীও হয়েছে অনেক বেশি।
স্থানীয় কৃষি অফিস সূত্রে জনা যায়, এবারে উপজেলার ৮ ইউনিয়নে প্রায় ৫ হাজার হেক্টর জমিতে ভুট্টাচাষ করা হয়েছে। এর মধ্যে ভুট্টা কর্তন ও প্রায় শেষ পর্যায় চলে এসছে। জানা যায়, এবারে বিঘাপ্রতি জমিতে ৩৫ থেকে ৪০ মণ হারে ভুট্টার ফলন হয়েছে। ভুট্টার এ বাম্পার ফলন ও দাম ভাল পাওয়ায় কৃষকরা খুশি। এদিকে এ বিপুল পরিমাণ জমির ভুট্টা ছড়ানোর জন্য এখন মেশিন নির্ভর হয়ে পড়েছেন চাষিরা।
উপজেলা সাহেবগঞ্জ সরদারপাড়ার জাহিদুল ইসলাম বলেন, আমরা দীর্ঘদিন থেকে ভুট্টাচাষ করে আসছি। যেহেতু তুলনা মূলক বোরোর চেয়ে এটি লাভজনক চাষ এজন্য আমরা প্রতি বছরই ভুট্টাচাষ করে থাকি। এবারও অনেক জমিতে ভুট্টাচাষ করেছি। আগে ভুট্টা মাড়াই নিয়ে আমাদের চরম বিপাকে পড়তে হত। এখন মেশিন দিয়ে ভুট্টা মাড়াইয়ের ফলে আর দুর্ভোগ পোহাতে হয় না। আর্থিক ও সময় দুইদিক থেকেই আমরা সাশ্রয়ী হচ্ছি। উপজেলা কৃষি অফিসার কেএম কাউছার হোসেন বলেন, ভুট্টা একটি লাভজনক আবাদ। এলাকার কৃষকরা ভুট্টাচাষে অনেক আগ্রহী হয়ে উঠেছে। আমরা শুরু থেকেই কৃষকদের বিভিন্নভাবে পরামর্শ দিয়েছি। এ ছাড়াও অনুকূল আবহাওয়া ও সঠিক পরিচর্যায় এবারে ভুট্টার ফলন ভাল হয়েছে। ভুট্টা মাড়াইয়ের মেশিন এখন পর্যন্ত প্রণোদনার আওতায় না আসায় আমরা কৃষকদের সরবরাহ করতে পরিনি। তবে বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের বিবেচনায় রয়েছে। আমরা পেলে ভুট্টা চাষিদের মাঝে সরবরাহ করবো।