আট বছর বয়সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : অবিশ্বাস্য ঘটনা ঘটেছে বেলজিয়ামে। দেশটির আট বছর বয়সী এক শিশু দেড় বছরেই স্কুলের পড়াশোনা শেষ করে বিশ্ববিদ্যালয়ে পা রাখতে চলেছে। যেখানে স্বাভাবিকভাবে স্কুলের পাঠ শেষ করতে ছয় বছরেরও বেশি সময় লাগে সেখানে সে তা শেষ করেছে দেড় বছরে। দুইমাসের ছুটি শেষে সে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবে।

তার বাবা বেলজিয়ান আর মা নেদারল্যান্ডসের নাগরিক। তারা জানিয়েছেন, বুদ্ধিমত্তার পরীক্ষায় লরেন্ট সিমন্সের নম্বর উঠেছে ১৪৫।

বেলজিয়ামের আরটিবিএফ রেডিওকে দেয়া একটি সাক্ষাৎকারে লরেন্ট বলছে, তার প্রিয় বিষয় গণিত, কারণ এটি বিশাল একটি বিষয়। সেখানে পরিসংখ্যান আছে, জ্যামিতি আছে আর বীজগণিত আছে।

তার বাবা জানিয়েছেন, ছোট বেলা থেকেই লরেন্ট অন্য শিশুদের সঙ্গে মিশতে পারতো না বা খেলতে পারতো না। খেলনার প্রতিও তার কোনো আগ্রহ ছিল না।

লরেন্ট জানিয়েছে, পড়াশোনা শেষ করে সে একজন সার্জন এবং নভোচারী হওয়ার কথা ভেবেছিল। কিন্তু এখন সে বরং কম্পিউটার নিয়েই কাজ করতে চায়।

তবে তার ভবিষ্যতের বিষয়ে বাবা বলেন, ‘যদি সে কালকে আবার কাঠমিস্ত্রি হতে চায়, সেটাও আমাদের জন্য কোনো সমস্যা নয়। তার যা করতে ভালো লাগবে, তাতেই আমরা খুশি।’

সূত্র: বিবিসি

Inline
Inline