আগামী বাজেটের সংশোধিত রাজস্বের তথ্য জানাবেন অর্থমন্ত্রী

চলতি অর্থবছরের শুরুতে বিশাল রাজস্বের লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হলেও অর্থবছরের শেষ দিকে এসে তাতে বড় ঘাটতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। ফলে বিগত বছরগুলোর মতই রাজস্বের লক্ষ্যমাত্রা কমানো হচ্ছে। অর্থ মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) রাজস্বের লক্ষ্যমাত্রা ২ লাখ ৪৮ হাজার কোটি টাকা থেকে প্রায় ২৫ হাজার কোটি টাকা কমিয়ে সোয়া দুই লাখ কোটি টাকা করা হতে পারে। শিগগিরই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে অর্থ মন্ত্রণালয়। এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও তা আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবেনা। আগামী বাজেট ঘোষণার সময় অর্থমন্ত্রী সংশোধিত বাজেট কিংবা সংশোধিত রাজস্বের এ তথ্য জানাবেন।

গত বাজেটে রাজস্ব আদায়ের প্রবৃদ্ধি ধরা হয়েছিল প্রায় ৩৫ শতাংশ। অর্থনীতিবিদরা এ লক্ষ্যমাত্রাকে অবাস্তব অর্থবছরের শেষ নাগাদ এটি কমিয়ে আনতে হবে পূর্বাভাস দিয়েছিলেন। গত কয়েক বছর ধরেই বাজেটের সময় সরকার বিশাল রাজস্বের লক্ষ্যমাত্রা নেয়। কিন্তু লক্ষ্যমাত্রা আর অর্জনে বড় ফারাক থাকায় বছর শেষে তা কমিয়ে আনতে হয়। অর্থনীতিবিদ ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ড. এ বি মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম ইত্তেফাককে বলেন, , দু:খজনক হলেও সত্য, বিশাল বাজেট দেওয়া একটি রেওয়াজ হয়ে গেছে। বছর শেষে দেখা যায়, আয় কিংবা ব্যয় – কোনটির লক্ষ্যই অর্জন হয়না। তিনি বলেন, চলতি বছয় হয়তো রাজস্ব আদায় ২০ শতাংশ বাড়তে পারে। অথচ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা দেওয়া হয়েছে ৩৬ শতাংশ। অর্থবছরের শুরুতেই বলেছিলাম, এটি কমিয়ে আনতে হবে। গত কয়েক বছর ধরে এটি নিয়মে পরিণত হয়েছে। এছাড়া বাজেটের সময়

চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর) রাজস্ব আদায় লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশ পিছিয়ে রয়েছে। আলোচ্য সময়ে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে রাজস্ব আদায় অন্তত ১০ হাজার কোটি টাকা কম হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে পিছিয়ে রয়েছে আয়কর। সম্প্রতি এনবিআর চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভুঁইয়া এ তথ্য জানিয়েছিলেন। চলতি অর্থবছর এনবিআরের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা দুই লাখ ৪৮ হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে প্রথম ছয় মাসে আদায় হয়েছে ৯২ হাজার কোটি টাকা। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে কম আদায় হয়েছে ১০ হাজার কোটি টাকা। এনবিআর সূত্র জানিয়েছে, জানুয়ারি পর্যন্ত আদায় ও লক্ষ্যমাত্রার এ ঘাটতি আরো বেড়েছে।

সাত মাসে আয়কর আদায় বেড়েছে ১২ শতাংশ

এদিকে এনবিআরের হিসাবে, গত সাত মাসে আয়কর আদায় বেড়েছে ১২ দশমিক ৩৩ শতাংশ। অথচ বাজেটে সরকার আয়কর খাত থেকে আদায়ে প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে প্রায় ৩৬ শতাংশ। বড় অঙ্কের আয়কর প্রদানকারী খাতগুলোর কাছ থেকে কাঙ্ক্ষিত হারে আয়কর আদায় না হওয়ায় তা সার্বিক আয়করে প্রভাব ফেলেছে। গত সাত মাসে আয়কর আদায় হয়েছে ৩২ হাজার ৭৫৫ কোটি টাকা। চলতি অর্থবছর আয়কর আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয়েছে ৮৬ হাজার ৮৬৭ কোটি টাকা।

Inline
Inline