আইনমন্ত্রীকে কটূক্তি, রাবি শিক্ষক বরখাস্ত

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আইনমন্ত্রী আনিসুল হককে কটূক্তি করার অভিযোগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৫৭তম সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সাময়িক বরাখাস্ত ওই শিক্ষকের নাম শিবলী ইসলাম। তিনি রাবির আইন বিভাগের প্রভাষক। সভা শেষে রাতে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক সিন্ডিকেট সদস্য এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ে রেজিস্ট্রার অধ্যাপক মুহাম্মদ এন্তাজুল হককে আহ্বায়ক করে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য এ কমিটিকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সিন্ডিকেটের ওই সদস্য আরও জানান, শিক্ষক শিবলী ইসলাম আইনমন্ত্রী আনিসুল হককে নিয়ে সপ্তাহখানেক আগে ফেসবুকে কটূক্তিকর মন্তব্য করেন। আইন মন্ত্রণালয় মন্তব্যটিকে ‘জঙ্গিবাদে উস্কানি’ হিসেবে অভিহিত করে রাবি প্রশাসনসহ মোট নয়টি প্রতিষ্ঠানকে এ ব্যাপারে চিঠি দিয়েছে।

তিনি বলেন, এই মন্তব্য ২০০৬ সালের তথ্য ও প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এই ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়কে ওই শিক্ষকের বিষয়ে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ করা হয়। এজন্য বিশেষ সিন্ডিকেট সভায় সব সদস্যের সম্মতিতে অভিযুক্ত শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্তের সিদ্ধান্ত হয়।

এ ব্যাপারে কথা বলতে সোমবার রাত পৌনে ৯টার দিকে শিক্ষক শিবলী ইসলামের ব্যক্তিগত মুঠোফোনে কল দেয়া হয়। তবে সেটি বন্ধ থাকায় এ ব্যাপারে তার কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।