‘অবরুদ্ধ’ জাতিকে মুক্ত করবে জাতীয় পার্টি: এরশাদ

জীবনের নিরাপত্তা না থাকায় দেশের জনগণ নিশ্চিন্তে ঘুমাতে পারে না মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তিনি বলেছেন, ‘আমরা সত্যিই আজ অবরুদ্ধ। কথা বলতে পারি না, লিখতে পারি না। আগামীতে আমরা হয়তো এই অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে জাতিকে মুক্ত করতে পারবো।’

মঙ্গলবার দুপুরে দলের বনানী কার্যালয়ে বাংলাদেশ জনতা ফ্রন্টের নেতাকর্মীদের জাপায় যোগদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন জাপা প্রধান।

বগুড়া ও ঝালকাঠি এলাকার নেতৃবৃন্দকে নিয়ে সদ্য বিলুপ্ত হওয়া বাংলাদেশ জনতা ফ্রন্টের মহাসচিব এ কে এম শফিকুল ইসলাম রঞ্জু এবং ভাইস চেয়ারম্যান তসলিম উদ্দিন মুন্সির জাপা চেয়ারম্যান এরশাদের হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে জাপায় যোগ দেন। জাপা প্রধান দলটির নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করার আশ্বাস দেন।

দেশের বর্তমান রাজনৈতিক অবস্থা ও মানুষের মনের হাহাকার শুনে পরিবর্তনের আশায় অনেকেই জাপাতে যোগ দিচ্ছেন বলে মনে করেন এরশাদ। তিনি বলেন, ‘আগামীতে আমরা হয়তো এই অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে জাতিকে মুক্ত করতে পারবো।’

এ পর্যন্ত জাপায় যেসব দল যোগ দিয়েছে তাদেরকে সঙ্গে নিয়ে সংগঠিতভাবে প্রচেষ্টা চালিয়ে জাতির আশাগুলোকে পূর্ণ করার চেষ্টার কথা জানান তিনি। বলেন, ‘আমরা সত্যিই আজ অবরুদ্ধ। কথা বলতে পারি না, লিখতে পারি না।’

এরশাদ বলেন, ‘দেশের মানুষ বাঁচতে চায়, মুক্তির নিঃশ্বাস নিতে চায়। একমাত্র জাতীয় পার্টিই মানুষকে মুক্তির নিশ্বাসের ব্যবস্থা করে দিতে পারে।’

বিভিন্ন দলের নেতাকর্মীর জাপায় যোগদানের মধ্য দিয়ে আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টির শক্তিশালী হওয়ার খবর মানুষের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে বলে মনে করে জাপা প্রধান। এরশাদ বলেন, ‘নির্বাচন বেশি দূরে নয়। এই নির্বাচনের মাধ্যমে মানুষ পরিবর্তন আনবে। সরকার পরিবর্তন করবে। মানুষ মুক্তির নিঃশ্বাস নিতে চাচ্ছে। এই নির্বাচনের মাধ্যমে সেটা প্রমাণিত হবে।’